হোয়াটস অ্যাপে বেশ কিছু ভারতীয়ের ওপর নজর রাখা হচ্ছে। নজর রাখা হয়েছে বলে চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশে এসেছে। জানা গিয়েছে, চলতি বছরের শুরুর দিকে ইজরায়েলি স্পাইওয়ার ভারতের বেশ কয়েজনের হোয়াটস অ্যাপের ওপর নজর রাখে। হোয়াটস অ্যাপের তরফে জানানো হয়েছে, মে মাসের আগেই ইজরায়েলি স্পাইওয়ার এই নজরদারি করে। দুই সপ্তাহ ধরে নজরদারি চলে বলেও হোয়াটস অ্যাপের তরফে জানানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে হোয়টস অ্যাপ জানিয়েছে, সাংবাদিক ও রাজনৈতিক নেতৃত্বের ওপর এই নজরদারি চালানো হয়েছে। 

মঙ্গলবার হোয়াটস অ্যাপের মূল সংস্থা ফেসবুক ইজরায়েলের সাইবার নিরাপত্তা সংস্থা এনএসও এর বিরুদ্ধে  একটি মামলা দায়ের করেছে বলে জানা গিয়েছে। ফেসবুকের তরফে একটি অভিযোগে জানানো হয়েছে, ২০টি দেশের প্রায় ১,৪০০ হোয়াটস ব্যবহারীর মেসেজের ওপর আড়ি পেতেছে ইজরায়েলের একটি সংস্থা। মূলত সাংবাদিক, কূটনীতিক, মানবাধিকার কর্মী ও প্রবীণ রাজনৈতিক নেতৃত্বের হোয়াটস অ্যাপের ওপর আড়ি পাতা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। 

স্পাইওয়ার হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহারকারীদের মেসেজ ও ফোনের কথপোকথনের ওপর নজর চালিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। শুধু তাই নয়, অনেক ক্ষেত্রে বেশ কিছু পাসওয়ার্ডও তারা হ্যাক করেছে বলে জানা গিয়েছে। তবে ঠিক কতজনের হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহারকারীর ওপর স্পাইওয়ার  হামলা করেছে, এই বিষয়ে কোনও বিস্তারিত তথ্য দিতে কর্তৃপক্ষ অস্বীকার করেছে।  তবে হোয়াটস অ্যাপের তরফে জানানো হয়েছে, এপ্রিলের শেষ দুই সপ্তাহ ধরে ভারতে বেশ কিছু হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহারীর ওপর ইজরায়েলের স্পাইওয়ার নজরদারি করেছে। চলতি বছরের মে মাসে ফেসবুক হোয়াটস অ্যাপের  এই নজরদারি বিষয়টি ধরতে পারে। যত দ্রুত সম্ভব, এই নজরদারি বন্ধ করতে তৎপর হয় ফেসবুক।