নিঝুম রাতে হরিদ্বার স্টেশনে হানা দিল গজরাজ , তবে প্ল্যাটফর্মে ঢুকে কিছুটা বিব্রত হাতিটি

| Feb 23 2022, 11:23 PM IST

নিঝুম রাতে হরিদ্বার স্টেশনে হানা দিল গজরাজ , তবে প্ল্যাটফর্মে ঢুকে কিছুটা বিব্রত হাতিটি
নিঝুম রাতে হরিদ্বার স্টেশনে হানা দিল গজরাজ , তবে প্ল্যাটফর্মে ঢুকে কিছুটা বিব্রত হাতিটি
Share this Article
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

সংক্ষিপ্ত

হরিদ্বার রেলওয়ে স্টেশনটি রাজাজি ন্যাশানাল পার্কের সংলগ্ন। সেই জঙ্গল থেকেই হাতিটি লোকালয়ে চলে এসেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। উত্তরাখণ্ডের হরিদ্বার, দেরহাদুন ও পাউরি গাড়োয়াল -এই তিনটি জেলায় বিস্তৃত রয়েছে রাজাজি ন্যাশানাল পার্ক। 

রাত দুপুরে নিঝুম হরিদ্বার রেল স্টেশন (Haridwar railway station )। আর সেই সময়ই একটি হাতি (wild elephant) ঢুকে পড়ে স্টেশনে। স্টেশনে থাকা কিছু মানুষ রাতদুপুরে গজরাজকে দেখতে পেয়ে চমকে ওঠেন। তাঁরাই এই ভিডিওটি শ্যুট করেন। ভিডিওটি (Video) দেখা যাচ্ছে  রাতের জনমানবহীন হরিদ্বার স্টেশনে। সেখানেই চরে বেড়াচ্ছে একটি হাতি। যাঁরা ভিডিওটি শ্যুট করেছেন তাঁদের কথায় পথ ভুলে হাতিটি ঢুকে পড়েছে প্ল্যাটফর্ম চত্ত্বরে। অন্ধকার স্টেশনে হাতিটিও কিছুটা বিব্রত হয়ে একটু জোরেই ছুটতে শুরু করে। এই পর্যন্তই রয়েছে ভিডিওটিতে। 

হরিদ্বার রেলওয়ে স্টেশনটি রাজাজি ন্যাশানাল পার্কের সংলগ্ন। সেই জঙ্গল থেকেই হাতিটি লোকালয়ে চলে এসেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। উত্তরাখণ্ডের হরিদ্বার, দেরহাদুন ও পাউরি গাড়োয়াল -এই তিনটি জেলায় বিস্তৃত রয়েছে রাজাজি ন্যাশানাল পার্ক। 1983 সালে, চিল্লা, মতিচুর এবং রাজাজি নামে এই এলাকার তিনটি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যকে একীভূত করে নামকরণ করা হয় রাজাজি ন্যাশানাল পার্ক। এই এলাকায় প্রচুর পরিমাণে বন্যপ্রাণী রয়েছেয। যাদের মধ্যে অন্যতম হল হাতি। 

তবে এটাই প্রথম নয়, এর আগেই রাজাজি ন্যাশানাল পার্ক থেকে বেরিয়ে লোকালয়ে ঢুকে পড়েছে গজরাজ। এই এলাকা দিয়ে গেছে ট্রেন লাইন। অনেক সময় ট্রেনের ধাক্কায় হাতি বা বন্য প্রাণীর মৃত্যুর ঘটনার খবরও সামনে এসেছে। যদিও জঙ্গল এলাকায় ট্রেনের গতি কমানোর নির্দেশ দেওয়া রয়েছে। এই এলাকায় সাধারণত ট্রেনের গতি থাকে ঘণ্টায় ৩০-৪৫ কিলোমিটার।