বুধবার থেকে শুরু সংসদের শীতকালীন অধিবেশন, বর্তমান সংসদে এটাই সম্ভবত শেষ অধিবেশন

| Dec 06 2022, 12:40 PM IST

India parliament

সংক্ষিপ্ত

বুধবার সংসদে শুরু হবে শীতকালীন অধিবেশন। ১৬টি বিল পাশ করাতে চায় কেন্দ্র। ভারত - চিন সীমান্ত সমস্যা নিয়ে আলোচনা চায় কংগ্রেস। উত্তপ্ত হতে পারে সংসদের অধিবেশন।

বুধবার থেকে শুরু হবে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। এই অভিবেশনে কেন্দ্রীয় সরকার ১৬টি বিল পাশ করাতে মরিয়া চেষ্টা করবে। অন্যদিকে কংগ্রেস চিন-ভারত সীমান্ত সমস্যা নিয়ে আলোচনা করার দাবি জানাবে। দেশের প্রধান দুই প্রতিপক্ষ ইতিমধ্যেই শীতকালীন অধিবেশনকে কাজে লাগানোর তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে। অন্যদিকে শীতকালীন অধিবেশনের মধ্যেই ফল প্রকাশ হবে গুজরাট ও হিমাচল প্রদেশের নির্বাচনী ফলাফল। রায় যাইহোক না কেন তার প্রভাব পড়তে পারে সংসদের অধিবেশনের ওপর। কারণ জয়ী দল প্রতিপক্ষকে ফলাফলের ইস্যুতে কোনঠাসা করতে উদ্যোগ নিতে পারেও বলেও মন করেছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

এক্সিট পোলের পূর্বাভাস দুটি রাজ্যেই কংগ্রেসের থেকে এগিয়ে থাকবে বিজেপি। গুডরাটে বিজেপি বড় জয় পাবে বলেও মনে করা হচ্ছে। অন্যদিকে হিমাচল প্রদেশে কংগ্রেস বিজেপিকে জোর টক্কর দিলেও শেষরক্ষা হবে না। ভোটের ফলাফল শীতকালীন অধিবেশনে কোনও প্রভাব ফেলবে না বলেও মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। বর্তমান সংসদ ভবনে শীতকালীন অধিবেশনই শেষ অধিবেশন হতে পারে। কারণ পরের অধিবেশন হবে নতুন সংসদ ভবনে। সরকারের পক্ষ থেকে বর্তমান সংসদভবনকে বিদায় জানানোর কোনও অনুষ্ঠান করা হবে কিনা তা এখনও জানান হয়নি। তবে সাংসদদের কাছে এই অভিযোগ যথেষ্ট আবেগপ্রবণ হতে পারে। তেমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। 

Subscribe to get breaking news alerts

এই অধিবেশনে কংগ্রেস-দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলির দুর্বলতা, আর্থিকভাবে অনগ্রসর শ্রেণির অবস্থা, সংরক্ষণ-সহ একাধিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে পারে। জয়রাম রমেশ জানিয়েছেন, 'গত ২২ মাস ধরে ভারত ও চিনের মধ্যে সীমান্তে উত্তেজনা রয়েছে। এই বিষয় এখনও পর্যন্ত সংসদে কোনও আলোচনা হয়নি। এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে চায় কংগ্রেস।' যার অর্থ সীমান্ত সমস্যা নিয়ে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন উত্তাল হতে পারে। কারণ এর আগে এই বিষয় নিয়ে আলোচনা চায়নি বিজেপি। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কংগ্রেসের আরেক নেতা বলেছেন তাদের তোলা বিষয়গুলি নিয়ে সংসদে যদি কেন্দ্রীয় সরকার আলোচনার সুযোগ দেয় তাহলে তারাও কেন্দ্রীয় সরকারকে গঠনমূলক সমর্থন জানাবে। তবে কংগ্রেসের অতীত অভিজ্ঞতা সুখরক নয় বলেও জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেছেন আলোচনা ছাড়াই বিজেপি বিল পাশ করাতে মরিয়া। মূল্যবৃদ্ধি, মুদ্রাস্ফিতী, টাকার দাম পড়ে যাওয়া - এই বিষয়গুলি নিয়ে এবার সংসদে আলোচনা হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। পাশাপাশি পণ্য ও পরিষেবা কর নিয়ে আলোচনার দরকার।

আরও পড়ুনঃ

মোদীকে নিয়ে টুইট করার গুজরাট পুলিশের কোপে সকেত গোখলে, রাতদুপুরেই গ্রেফতার তৃণমূল মুখপাত্র

আজ রাজস্থানের আজমের ও পুস্কর যাবেন মমতা, কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে গেহলত সরকার

G-20 summit সফল করতে প্রস্তুতি বৈঠকে হাজির দেশের প্রথম সারির রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা, দেখুন বৈঠকের অ্যালবাম