অফিসের সিনিয়র ও সহকর্মীদের মানসিক অত্যাচারের জেরে আত্মহত্যা করলেন ভারত হেভি ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডের হায়দরাবাদের এক মহিলা কর্মী। হায়দরাবাদের মিয়াপুর থানার তরফে জানানো হয়েছে,  নেহা নামের ৩৩ বছরের ওই তরুণী ভারত হেভি ইলেকট্রনিক্স  লিমিটেডের অ্যাকাউন্টস বিভাগে কাজ করতেন। বৃহস্পতিবার তিনি নিজের ঘরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পুলিশ নেহার মৃতদেহের পাশে একটি সুইসাইড নোট  উদ্ধার করেছে। সেখানে নেহা অফিসে সিনিয়র ও সহকর্মীদের বিরুদ্ধে মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন বলে জানা গিয়েছে। 

হায়দরাবাদের মিয়াপুর থানার এক পুলিশকর্মী জানিয়েছেন, 'নেহা চিঠিতে অফিসের সিনিয়র ও ছয় কর্মীর বিরুদ্ধে মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন। চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, দিনের পর দিন তাঁর ওপর মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে। এই মানসিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বাধ্য হয়েই  তিনি এই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।'

ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহ স্থানীয় সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। নেহার স্বামী ভারত হেভি ইলেকট্রনিক্স  লিমিটেডের সাত কর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে এসেছে। হায়দরাবাদের পুলিশ ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে বলে জানা গিয়েছে।