নির্জন পাহাড়ি রাস্তা। কালেভদ্রে গাড়ি আসে। আর তার সুযোগেই খোলা আকাশের নিচে ঘনিষ্ঠ হতে চেয়েছিলেন এক যুগল। ঘুণাক্ষরেও ভাবতে পারেননি, তাদের সেই ঘনিষ্ঠ মুহূর্ত ধরা পড়তে পারে কোথাও। কিন্তু, 'বিগ ব্রাদার ইস ওয়াচিং'। গুগল ক্যামেরার নজর এড়ানোর উপায় নেই। গুগল স্ট্রিট ভিউ ক্যামেরার দৌলতে তাদের সেই একান্ত আপন মুহূর্ত এখন সোশ্য়াল মিডিয়ায় হাজার হাজার মানুষের চোখের সামনে উঠে এসেছে। আর এই নিয়েই কথা না রেখে বিতর্কে জড়িয়েছে গুগল।

তাইওয়ানের তাইচুং এলাকার শান্তিয়ান রোড। রাস্তায় গাড়ি চলে না বললেই চলে। সেখানেই রাস্তার ধারে গাড়ি রেখে বিবস্ত্র অবস্থায় আলিঙ্গন করছিলেন ওই যুগল। সেই সময়ই গুগল স্ট্রিট ভিউ ক্যামেরায় উঠে যায় তাদের সেই অবস্থার ছবি। এমনিতে গুগল স্ট্রিট ভিউ-তে দেখলে সোজা রাস্তায় দেখা যাচ্ছে রাস্তার ধারে রাখা তাদের গাড়িটিই। কিন্তু, গুগলরে ৩৬০ ডিগ্রি ভিউ-প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ক্যামেরা অ্যাঙ্গেলটা পাল্টে দিলেই ওই যুগলকে দেখা যাচ্ছে।

এক নেটিজেনই এই ছবি প্রথম আবিষ্কার করেন। তিনি সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জানিয়েছেন, ওই রাস্তায় কিছু বন্যপ্রাণী দেখা যেতে পারে বলে তিনি গুগল স্ট্রিট ভিউ খুলে দেখছিলেন। সেই সময়ই রাস্তার ধারে দাঁড় করানো গাড়িটি নিয়ে তাঁর কৌতূহল হয়। আর সেই কৌতূহলের ফলেই এখন এই যুগলের ঘনিষ্ঠতা আর গোপন নেই।

গত বছর একই ভাবে এক তাওয়ানিজ মহিলাকে গুগল স্ট্রিট ভিউ ক্যামেরায় বক্ষ প্রদর্শন করতে দেখা গিয়েছিল। যা নিয়ে গুগলের প্রবল সমালোচনা হয়। তারপরই সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, নগ্নতা বা যৌনতার ছবি বাদ দেওয়া বা অস্পষ্ট করে দেওয়া হবে। তার জন্য তাদের অ্যালগোরিদম ঢেলে সাজানো হবে। কিন্তু তারপরেও এই ছবি কী করে রইল সেই নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছে গুগল। তবে এই ছবি নিয়ে হইচই শুরু হতেই গুগলের পক্ষ থেকে স্ট্রিট ভিউ থেকে তে ওই ছবি সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।