নেতির মাঝে ইতির সন্ধান। ভারতের অর্থনীতি নিয়ে ইতিবাচক মন্তব্য় করলেন আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডার বা আইএমএফ-এর প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা। তাঁর মতে,ভারতে বৃদ্ধির হারের মন্দা সাময়িক। শীঘ্রই গতি পাবে দেশের অর্থনীতি।  

দেশের সাম্প্রতিক আর্থিক বৃদ্ধির হার নিয়ে আশঙ্কায় খোদ মোদী সরকার। উত্তরণ তো দূর, এই নিয়ে চিন্তায় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। দেশের আর্থিক অবস্থার উন্নতি ঘটাতে একের পর এক টোটকা দিয়ে চলেছেন তিনি। তাতে অর্থনীতির রাশ ধরা গেলেও উত্তরণের পথ এখনও পাওয়া যায়নি। যার ফলে প্রতি মুহূর্তে বিরোধীদের তোপের মুখে পড়তে হচ্ছে তাকে। এই এই পরিস্থিতিতে আশার বাণী শোনালেন আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডার বা আইএমএফ-এর প্রধান।

সম্প্রতি সুইজারল‌্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের মঞ্চে আইএমএফ প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা বলেন, ভারতের এই আর্থিক অবস্থা সাময়িক।  কারণ তাদের বাজার বিশাল। সেখানে এখন মন্দার প্রকোপ থাকলেও তা দীর্ঘস্থায়ী হবে না। খুব দ্রুত অবস্থা পালটে গিয়ে উন্নতি হবে। আবার ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনামের মতো কয়েকটি উজ্জ্বল দিকও রয়েছে। মেক্সিকোর মতো কয়েকটি দেশের আর্থিক উন্নতি সেভাবে না হলেও আফ্রিকার কয়েকটি দেশ এক্ষেত্রে খুব ভালো জায়গায় রয়েছে।

তবে শুধু ভারত নয়, বিশ্বের আর্থিক অবস্থা নিয়ে তাঁর মতামত ব্য়ক্ত করেন আইএমএফ প্রধান। তিনি বলেন, ২০১৯-এর অক্টোবরে গোটা বিশ্বের আর্থিক পরিস্থিতির থেকে  ২০২০-র জানুয়ারিতে অবস্থা কিছুটা হলেও উন্নত হয়েছে। এই ইতিবাচক পরিবর্তনের পিছনে চিন-মার্কিন বাণিজ‌্যযুদ্ধের উত্তেজনার আবহ হ্রাস পাওয়া একটা অন্য়তম কারলণ বলে ব্যাখ্যা করেন তিনি।  

তবে আসার মাঝে আশঙ্কার কথাও উল্লেখ করেন জর্জিয়েভা। তিনি বলেন, ৩.৩ শতাংশ হারে বৃদ্ধি বিশ্ব অর্থনীতির পক্ষে মোটেই আশাজনক নয়। আর্থিক নীতি  ও পরিকাঠামোগত সংস্কার না করলে বিশ্বের অর্থনৈতিক উন্নয়ন যে সম্ভব নয় তা পরিষ্কার জানিয়ে দেন তিনি।