যে রুশ সুন্দরীকে বিয়ে করার জন্য় একদিন সিংহাসন ত্যাগ করেছিলেন তাঁর সঙ্গে আর সংসার করা হল না মালয়েশিয়ার প্রাক্তন রাজা সুলতান মহম্মদ পঞ্চম-এর। সাতাশ বছর বয়সী প্রাক্তন 'মিস মস্কো' রিহানা ওকসানা ভোয়েভোদিনার সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হল তাঁর। স্ত্রীয়ের সঙ্গে বিচ্ছেদের খবর নিশ্চিত করা হয়েছে প্রাক্তন রাজার আইনজীবির সূত্রে। 

সূত্রের খবর, অশান্তি শুরু হয় রিহানার একটি আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই। ঘটনাচক্রে এরই মধ্যে সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়েন তিনি। রুশ সুন্দরীর গর্ভে থাকা সন্তানকে অস্বীকার করেন সুলতান মহম্মদ পঞ্চম। আর তারপরই সাবেক ইসলামিক রীতি মেনে স্ত্রীকে তিন তালাক দেন তিনি। প্রসঙ্গত গত ২১ মে তারিখে একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দেন রিহানা।

অথচ একদিন এই রুশ সুন্দরীকেই বিয়ে করার জন্য সংহাসন পর্যন্তও ত্যাগ করেছিলেন তিনি।  গত বছর নভেম্বর মাসে তাঁদের বিয়েকে কেন্দ্র করে বিরাট হইচই হয়েছিল। মস্কোর একটি কনসার্ট হলে তাঁদের বিয়ের অনুষ্ঠানও হয়েছিল বেশ জাঁকজমকভাবেই। তারপর থেকেই মালয়েশিয়ার রাজার সিংসাহন থেকে তাঁর পদত্যাগের খবর নিয়ে শুরু হয় জোর গুঞ্জন। তবে বিয়ের পর থেকে বারংবার তাঁর খোলামেলা পোশাক পরা নিয়ে বিস্তর সমালোচনা হয়েছে। 

যদিও এই তালাক যে রুশ সুন্দরী যে মেনে নেননি তা প্রকাশ পায় তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেল থেকেই। সেখানে এখনও তাঁর এবং সুলতানের ছবি এখনও জ্বল জ্বল করছে। যদিও সুলতান এবং রিহানার মধ্যে বয়সের ফারাক অনেকটাই। ৪৯ বছর বয়সে সুলতান বিয়ের আসনে বসেছিলেন ২৭ বছর বয়সী রিহানার সঙ্গে। সেই নিয়েও তাঁকে কম সমালচনার মুখে পড়তে হয়নি। অবশেষে সেই সুন্দরীর সঙ্গে আর একসঙ্গে না থাকার সিদ্ধান্ত নিলেন সুলতান