প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে পুরুষরা বিভিন্ন অভিনব উপায় নিয়ে থাকেন। ওয়াইনের গ্লাসের নিচে কিংবা পছন্দের কেক-পেস্ট্রি'র মধ্যে বাগদানের আঙটি লুকিয়ে রাখেন। কিন্তু সংসদের গুরুত্বপূর্ণ অধিবেশন পণ্ড করে এক সাংসদ তাঁর প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিচ্ছেন, এমনটা শুনেছেন? এবার সেই ঘটনাও ঘটল। যার জেরে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের এক আলোচনা ভেস্তেই গেল।

ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার, ইতালির সংসদে। সংসদে নিজের আসনে বসে ছিলেন সাংসদ ফ্লাভিও দে মুরো। দর্শকাসনে বসে ছিলেন  তাঁর প্রেমিকা অ্যালিসা দে লিয়াও। অধিবেশন চলাকালীনই পকেট থেকে একটি ছোট্ট বাক্স বের করে ফ্লাভিও, অ্যালিসার উদ্দেশ্যে খুলে ধরেন। তার মধ্যেি ছিল বাগদানের আঙটি। সঙ্গে সঙ্গে অ্যালিসা তাতে সম্মতিও দেন।

সংসদে সেই সময় ভূমিকম্পের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত এক এলাকা কী ভাবে পুনর্গঠন করা হবে, তাই নিয়ে আলোচনা চলছিল। কিন্তু, ফ্লাভিও ও অ্যালিসা-র কাণ্ডে সেই আলোচনা তখনকার মতো ভেস্তে যায়। অন্যান্য সাংসদরা ফ্লাভিও-কে অভিনন্দন জানান। তবে স্পিকার কিন্তু অধিবেশনে বিঘ্ন ঘটানোয় ফ্লাবিও-কে কড়া কথাই শুনিয়েছেন। স্পিকার রবার্তো ফিকো বলেন, ফ্লাভিও যা করলেন তাতে তিনি তাঁর মনে ধরেছে ঠিকই, কিন্তু ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার পুনর্গঠনের মতো গুরুত্বপূর্ণ আলোচনায় বিঘ্ন ঘটানোটা মোটেই উচিৎ হয়নি।

জানা গিয়েছে ৩৩ বছরের ফ্লাভিও দে মুরো ও অ্যালিসা গত ছয় বছর ধরে সম্পর্কে রয়েছেন। একসঙ্গেই থাকেন তাঁরা। ফ্লাভিও রাজনৈতিক ও ব্যাক্তিগত জীবনের সবচেয়ে কাছের সঙ্গী অ্যালিসা। গত বছর মার্চে লিগ পার্টির হয়ে প্রথম বারের মতো ইতালিয় সংসদের নিম্নকক্ষের সদস্য নির্বাচিত হন ফ্লাভিও।