রাস্তা দিয়ে বহে চলেছে রক্ত স্রোত। পচা দুর্গন্ধে ভরে উঠেছে গোটা এলাকা। দেখে মনে হচ্ছে বর্ষাকালের জলের সঙ্গে কেউ যেন লাল রঙ মিশিয়ে দিয়েছে। এমন পরিস্থিততে রাস্তার দুপাশে লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে সারি সারি গাড়ি। এই রকম অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে দিয়েই কোনও রকমে রাস্তায় যাতায়াত করছেন সাধারণ মানুষ। এই দুর্বিসহ অবস্থা দেখা গিয়েছে পূর্ব আর্জেন্টিনার মরোন শহরে।

আরও পড়ুন- করোনায় মৃত বোনের শেষকৃত্যের আর্জি জানিয়ে লাইভে ভেঙ্গে পড়লেন দাদা, দেখুন মর্মান্তিক ভিডিও

তবে এমন অবস্থা হওয়ার কারণ টা কী! প্রথম দিকে এই বিষয়ে যথেষ্ট ধন্ধে ছিলেন স্থানীয়রা। পরে জানা যায় আসল রহস্য। কেন রাস্তা দিয়ে এমন রক্তস্রোত বহে চলেছে সেই বিষয়ে জানতে পারে স্থানীয়রা। ঘটনাটি ঘটেছে ৯ মার্চ। একটি গবাদি পশুর রক্তবোঝাই ট্যাঙ্কার ফেটে ঘটে এই ঘটনা। গবাদি পশুদের রক্তে ভেসে যায় রাস্তা-সহ গোটা এলাকা। যার জেরে পচা দুর্গন্ধে ছেয়ে যায় এলাকা। বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ঘটনার দিন হঠাৎ এক বিকট আওয়াজে কেঁপে উঠেছিল এলাকা। 

এই আওয়াজ হওয়ার কিছু সময়ের মধ্যেই এলাকার রাস্তা ভেসে যায় গবাদি পশুর পচা রক্তে। এলাকার শেষ প্রান্তে রয়েছে একটি কসাইখানা। সেই কারখানা বহুবার তুলে দেওয়ার জন্য প্রসাশনের কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন স্থানীয়রা। তবে কিছুতেই কোনও কাজ হয়নি। বাসিন্দাদের মতে, গোটা এলাকা কুকুর, বিড়াল, ইঁদুর ও গরুর পচা রক্তে ভর্তি হয়ে গিয়েছে। এই ঘটনার ছবি তুলে তাই এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় সোচ্চার হয়েছেন এলাকার বাসিন্দারা। একটি ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় কী করে এমন একটি কারখানা গড়ে উঠতে পারে এই বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তারা।