প্রতিদিন একটু একটু করে আবহাওয়া বদলাচ্ছে বিশ্ব জুড়ে। সমুদ্রের জলস্তর নামছে, বরফ গলছে মেরুপ্রদেশের। এই বদলের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে নাজেহাল গোটা বিশ্ব। সেই দলে নাম লিখিয়েওছে একদল বলগা হরিণও। সম্প্রতি এক সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, বাঁচার তাগিদে, নিজেদের খাদ্যাভাসই বদলে ফেলেছে বলগা হরিণরা।  

নরওয়ে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের এক দল সমীক্ষক  গবেষণা করে তুলে এনেছেন এই নতুন তথ্য। তাঁরা দেখাচ্ছেন, স্ভালবার্ড অঞ্চলের কয়েক হাজার বলগা হরিণ নিজেদের খাদ্যাভ্যাস বদলে সামুদ্রিক গাছপালা খাচ্ছে।

পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি বলগা হরিণের ঘনত্ব রয়েছে স্ভালবার্ড অঞ্চলে। এই অঞ্চলের কয়েক হাজার বছরের বালিন্দা এই হরিণরা এতদিন ঘাসপাতাই খেত। কিন্তু গোটা তুন্দ্রা অঞ্চল শীতে বরফে ঢেকে গেলে দেখা যাচ্ছে এই হরিণরা আর গাছপালা র সন্ধানে অসহায় ভাবে ঘুরছে না বরং সমুদ্রের দিকে গিয়ে সামুদ্রিক গাছপালা খাচ্ছে।  গবেষকদের দাবি বিষয়টি করুণ পরিণতি মনে হলেও আসলে আশার আলো রয়েছে। এই হরিণরা আসলে পৃথিবীর পরিবর্তিত পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে চাইছে। এই কাজে তারা সফল হয়ে গেলে পৃথিবীতে তাদের বসবাসের মেয়াদ বাড়বে।