আইপিএল ইতিহাসে সবথেকে সফল দল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। এককালে দলের অধিনায়কত্ব সামলেছেন ক্রিকেট ঈশ্বর সচিন তেন্ডুলকার। তখন অবশ্য একবারও ট্রফি জিততে পারেনি আম্বানির দল। প্রথমবারের জন্য তারা ট্রফি যেতে ২০১৩ সালে। এরপর ২০১৫, ২০১৭ এবং শেষ মরশুমে অর্থাৎ ২০১৯ এ ট্রফি ঘরে তুলেছে ঘরের ছেলে রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন মুম্বই। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সই এমন একমাত্র দল যারা প্রত্যেকটি আইপিএল ট্রফি ঘরে তুলেছে ঘরের ছেলের অধিনায়কত্বে। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ছাড়া অন্য আইপিএল বিজয়ী দলগুলির মধ্যে কারওরই ট্রফি জেতার সময় শহরের কোনো ক্রিকেটার অধিনায়ক ছিল না। আরও একবার এই বিরল নজিরের পুনরাবৃত্তি করতে মরিয়া মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। তারা ৪ বার ট্রফি জিতলেও এখনো অবধি চেন্নাই সুপার কিংস ছাড়া কোনও দল পরপর দু বছর আইপিএল জেতেনি। ২০২০ আইপিএল জিতে সেই নজির ছুঁতে মরিয়া মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। এই মরশুমে তারা নতুন করে সই করিয়েছেন বিধ্বংসী ওপেনার ক্রিস লিনকে। কুইন্টন ডি ককের সাথে জুটি বেঁধে তাকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স-এর হয়ে ওপেন করতে দেখা যেতে পারে। এছাড়া আগেও মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে খেলে যাওয়া অভিজ্ঞ ঘরোয়া ব্যাটসম্যান সৌরভ তিওয়ারি-কে আবার দলে সই করিয়েছেন মুম্বই ম্যানেজমেন্ট।

চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে তাদের আইপিএল অভিযান শুরু করছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। তাদের সম্পূর্ণ ফিক্সচারটি নিচে দেওয়া থাকলো

১. বনাম চেন্নাই সুপার কিংস। ২৯ মার্চ (হোম)
২. বনাম সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ১ এপ্রিল (অ্যাওয়ে)
৩. বনাম রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। ৫ এপ্রিল (হোম)
৪. বনাম কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ৮ এপ্রিল (অ্যাওয়ে)
৫. বনাম  কলকাতা নাইট রাইডার্স। ১২ এপ্রিল (অ্যাওয়ে) 
৬. বনাম রাজস্থান রয়েলস। ১৫ এপ্রিল (হোম)
৭. বনাম কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। ২০ এপ্রিল (হোম)
৮. বনাম চেন্নাই সুপার কিংস। ২৪ এপ্রিল (অ্যাওয়ে)
৯. বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স। ২৮ এপ্রিল (হোম)
১০. বনাম দিল্লি ক্যাপিটালস। ১ মে (হোম)
১১. বনাম দিল্লি ক্যাপিটালস। ৬ মে (অ্যাওয়ে)
১২. বনাম সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ৯ মে (হোম)
১৩. বনাম রাজস্থান রয়েলস। ১১ মে (অ্যাওয়ে)
১৪. বনাম রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। ১৭ মে (অ্যাওয়ে)