ফের সেল্ফির বলি হল এক যুবতী। ট্রেনের ধাক্কায় আহত হয়েছে আরও একজন। এবার ঘটনাস্থল জলপাইগুড়ির মালবাজারের ওদলাবাড়ি। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ঘিস নদীর রেল সেতুর ওপর সেলফি  তুলতে গিয়েই মৃত্য়ু হয়েছে যুবতীর।  

এলাকার বাসিন্দারা জনান,রবিবার ছুটির দিনে  নদীর চরে পিকনিক  করতে আসেন অনেকেই। এদিনও তার  ব্য়তিক্রম হয়নি। সাধারণতন্ত্র দিবসে বিভিন্ন জায়গা থেকে ওদলাবাড়ি ঘিস নদী এলাকায় পিকনিক করতে এসেছিল লোকজন। ছুটির মেজাজে রেল সেতুর উপরে উঠে পড়ে তারা।  সেতু ফাঁকা দেখে এদিন রেল সেতুর ওপর দিয়ে হাঁটছিল আক্রান্ত  দুই যুবতী। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সেলফির নেশায় ট্রেনের লাইনের দিকে নজর পড়েনি  তাঁদের।

হঠাৎ সেই সময় ট্রেন চলে আসায় সেতু থেকে ছিটকে  নদীতে পরে যায় ওই দুই যুবতী।  ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় আরও একজনের । আরও একজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় ওদলাবাড়ি হাসপাতালে  পাঠানো হয়। পরে সেখান থেকে তাকে মালবাজার হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে পুলিশ। 

তবে রেল সেতুতে পিকনিকের মরশুমে বহু মানুষের উঠে পড়ার ঘটনা নতুন নয়। এর আগে জলঢাকা সেতুতে উঠে ছেলে মেয়েরা সেল্ফি তুলতে গিয়ে বিপদে পড়েছে। তারপরও শিক্ষা নেয়নি কেউ।  ফলে দিনের পর দিন এরকম মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে। এখনও পর্যন্ত যা জানা গেছে, আহত এবং নিহত দুজনের বাড়ি ময়নাগুড়ি।  দুজনেরই বয়স ১৮ বছর। 

রাজ্য় তথা দেশের সাম্প্রতিক অতীত ঘাঁটলে দেখা যাবে, দেশে প্রতিদিন সেল্ফির বলি হচ্ছে য়ুব প্রজন্ম। অনেক ক্ষেত্র টিকটক ভিডিয়ো তুলতে গিয়েও প্রাণের ঝুঁকি নিচ্ছে অনেকেই। পরে যার ফল ভুগতে হচ্ছে যুব প্রজন্মকে। দেশের অনকে জায়গায় ইতিমধ্য়েই সেকারণে নো সেলফি জোন করে দেওয়া হয়েছে। তা সত্য়েও হুঁশ ফেরেনি কারও।