কর্মজীবী মানুষের সারা দিনের বেশিরভাগ সময়টাই কাটে অফিস ডেস্কে। টানা ৯-১০ ঘণ্টা একভাবে বসে থাকার ফলে কিন্তু দেখা দিতে পারে এমন কয়েকটি শারিরীক সমস্যার, যার মাশুল আপনাকে গুনতে হতে পারে আজীবন। এক ঝলকে দেখে নিন সেগুলি কী কী-

১) হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বাড়ে- একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, কেউ যদি দিনে কমপক্ষে ছয় ঘণ্টার বেশি সময় ধরে বসে কাজ করলে, একটা সময়ের পর হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পায় প্রায়। ৬৫ শতাংশ ক্ষেত্রে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়। 

২) ক্যালোরি বার্ন-এর পদ্ধতি কমে যায়- এক জায়গায় অনেকক্ষণ ধরে বসে থাকলে মাংসপেশীর কর্মক্ষমতা কমে যায়। ফলে ক্যালোরি বার্ন করার ক্ষমতা ধীরে ধীরে কমে আসে। তাই বসে কাজ করলে শরীরে বেশি করে মেদ জমতে শুরু করে, যা পরোক্ষভাবে শরীরে বাসা বাধতে পারে রোগ।

৩) ডায়বেটিসের ঝুঁকি বাড়ে- দিনের পর দিন ৯-১০ ঘণ্টা টানা একভাবে বসে কাজ করলে টাইপ ২ ডায়বেটিসের ঝুঁকি বাড়তে থাকে। তাই অন্তত আধঘণ্টা বা একঘণ্টা পরপর উঠে দাঁড়ান, রিল্যাক্স করুন, পারলে খানিকটা হেঁটে নিন।

৪) হাড় দুর্বল করে- দিনের পর দিন টানা একভাবে বসে কাজ করলে পীঠের হাড় দুর্বল হয়। এর ফলে বাতের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়। 

৫) পিঠে ও শিরদাঁড়ার ক্ষয়- একভাবে বসে থাকলে পিঠে ও শিরদাঁড়ায় প্রবল চাপ পড়ে। সেইসঙ্গে এর সংলগ্ন মাংসপেশী ও হাড়ের সংযোগস্থলেও চাপ পড়ে। ফলে অদূর ভবিষ্যতে নানা ধরনের সমস্যা তৈরি হতে পারে।

অনেকেই হয়তো জানেন না, একটানা অনেকক্ষণ বসে থাকলে যে অঙ্গগুলি ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়, সেগুলি হল-  পায়ের পাতা, মাথা, হাত, পা,পাকস্থলী, ঘাড়, পিঠ, ফুসফুস। সুতরাং, যতই ব্যস্ততা থাকুক না কেন টানা একভাবে বসে কাজ করা কখনওই উচিৎ নয়।