নতুন ক্রেটার কেবিন কেমন হবে তার ঝলক উঠে এল  স্কেচ ছবিতে। অটো এক্সপো ২০২০-তে এই গাড়ির চেহারা দেখা গিয়েছিল কিন্তু সবার সে অভিজ্ঞতা হয়নি। তাই সবার জ্ঞাতার্থে ক্রেটার অভূতপূর্ব পরিচ্ছন্ন ও প্রিমিয়াম কেবিনের ছবি প্রকাশ করল হুন্ডাই। সেন্টার কনসোলে ওয়াটারফল ডিজাইন, ইনফোমেন্ট সিস্টেম যা কিছুটা এমবসড তা অবশ্যই উৎকৃষ্ট কার্যক্ষম প্রদান করে। এর  সঙ্গে চারটে স্পোক দিয়ে সাজানো ফ্ল্যাট বটম স্টিয়ারিং হুইল, স্টিয়ারিং মাউন্টেড কন্ট্রোল, উন্নতমানের আপহোলস্ট্রি ইত্যাদি চালকের কাজ আরামদায়ক করে তুলবে।

পাওয়ার অ্যাডজাস্টেবল ফ্রন্ট সিট, প্যানারোমিক সান্রুফ, এয়ার পিউরিফায়ার  আছে নতুন ক্রেটায় এবং বেশ বড়ো টাচস্ক্রিন রাখা হয়েছে ইনফোমেন্ট সিস্টেমে। সুরক্ষা ব্যবস্থার দিক থেকে দেখতে গেলে  নতুন ক্রেটায় দুটি এয়ার ব্যাগ থাকছেই, সঙ্গে অ্যান্টি-লক ব্রেক্স, ইলেক্ট্রনিক ব্রেক ফোর্স ডিস্ট্রিবিউশন এবং রিয়ার পার্কিং সেন্সর থাকছে। এই নতুন সংযোজনগুলো নিরাপত্তার দিকটি সুনিশ্চিত করবে।  । নতুন ক্রেটার বুমেরাং-শেপড এলইড হেডলাইট, সুন্দর সরু ইন্ডিকেটর ল্যাম্প, নতুন উন্নতমানের ডিজাইন থাকবে বাম্পারেও। সঙ্গে ফ্লেয়ারড হুইল আর্চ, অ্যালয় হুইলস , রুফ রেল এবং কার্ভড আদলে তিনটি টোনের রঙের যে ব্যবহার তা নতুন ক্রেটাকে আকর্ষণীয় করে তুলেছে।
এই গাড়িতে তিনটি ইঞ্জিনের বিকল্প থাকছে- ১.৫ লিটার পেট্রল, ১.৫ লিটার ডিজেল এবং ১.৫ লিটার টুর্বো পেট্রল সঙ্গে ম্যানুয়াল ও অটোমেটিক ট্রান্সমিশন অপশন। বাইরের সজ্জার কথা আগেই বলা হয়েছে, এক সম্পূর্ণ নতুন চেহারা নিয়ে আসছে নতুন ক্রেটা, যা তাদের পূর্বসূরীদের থেকে আলাদা।

দাম নিয়ে কোনো তথ্য এখনো পাওয়া যায়নি। কিন্তু মনে করা হচ্ছে এই গাড়ির দাম ১০-১২ লাখ টাকার কাছাকাছি থাকবে।  এই বছরের ১৭ মার্চ আমাদের দেশে লঞ্চ হবে হুন্ডাই ক্রেটা।