শরীরের বাড়তি মেদের জন্য আমরা নানা রকমের কসরত করে থাকি। কঠোর ডায়েট থেকে শুরু করে শরীরচর্চা, নানা ধরনের টোটকা কোনওকিছুই যেন বাদ পড়ে না তালিকা থেকে। আর যখন মেদ না কমে তখনই ক্রাশ ডায়েটে ভরসা রাখই আমরা।  তখনই যেন অতিমাত্রায় সর্তক হয়ে উঠি। আর সবার আগে খাদ্যতালিকা থেকে বাদ যায় ভাত। শরীরের ফ্যাটের জন্য যা যা করা দরকার তার সবটাই একদিনে আমরা করে ফেলি।

আরও পড়ুন-শরীরের বিভিন্ন ব্যথা কমাতেও কার্যকরী আকন্দ গাছ, জেনে নিন উপকারিতা...

 

 

মুশকিল হল, নিজের ইচ্ছামতো ডায়েট করতে গিয়ে বিপদ বাড়ে অনেকেরই। বিশেষজ্ঞের পরামর্শ না নিয়ে  ডায়েট বাছতে গিয়ে শরীরের ক্যালোরি বুঝে উঠতে পারে না। কিন্তু  ভাত খেলেই যে মোটা হবেন এটা সম্পূর্ণ ভ্রান্ত ধারণা। প্যাকেটজাত খাবারের থেকে ভাত খাওয়া শরীরের পক্ষে ভাল। তবে পরিমাণে কম। ভাত খেলে ফাইবারের উপস্থিতি শরীরে ঠিক থাকে। এবং ওজনও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

আরও পড়ুন-সাবধান, বিয়ের মরশুমে হলমার্ক ছাড়া গয়না কেনার আগে মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি...

ভাত যদি নিয়ম মেনে খাওয়া যায় তাহলে শরীরে মেদও জমে না। প্রতিদিন যদি ১৫০ গ্রাম ভাত চান,  তাতে ৫০০ ক্যালোরির বেশি শরীরে ঢোকে না। দিনে যদি ২০০০-২২০০ ক্যালোরি শরীরে ঢোকে তবে তার মধ্যে স্যালাড, স্যুপ, কম তেলে রান্না করা  মাছ, মাংস  খান। তাহলেই সেটা পূরণ হয়ে যাবে। তাই ভাত না খেয়ে ডায়েট নয়, বরং ভাত খেয়ে নিয়ম মেনে ডায়েট করুন।