যে কোনও দেশের যুব সমাজ সেই দেশের সবচেয়ে বড় শক্তি। গ্রেটা থানবার্গ থেকে শুরু করে মালালা ইউসুফজাই, এই যুব সমাজ বিশ্বজুড়ে জলবায়ু পরিবর্তন, মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং এমনকী বর্তমান মহামারী মতো বিভিন্ন ঘটনায় পরিবর্তনের গুরুত্বপূর্ণ শক্তি হিসাবে কাজ করেছে। বিশ্বব্যাপী সামগ্রীক পরিবর্তন আনতে যুব সমাজের এই অবদানের জন্য প্রতি বছর ১২ আগস্ট আন্তর্জাতিক যুব দিবস পালিত হয়।

১২ আগস্ট ২০০০ সালে প্রথম উদযাপিত হয়েছিল এই যুব দিবস। আন্তর্জাতিক যুব দিবসটি জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সুপারিশের পরে ১৯৯৯ সালে প্রথম বারের মতো পালিত হয়েছিল। যুব দিবসের মূল উদ্দেশ্য সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ঘটনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন বিষয়ে যুবকদের অংশগ্রহণ এবং মতামত আলোচনা করা।

বিশ্বব্যাপী এই মহামারীর মত জটিল সময়েও যুবসমাজ জাতিগত বৈষম্যের মতো ঘটনাগুলির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে এবং সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে। 'দ্য ব্ল্যাক লাইভস মুভমেন্ট' চলাকালীন যুব সমাজকে এই সমাজ ব্যবস্থার পরিবর্তনের দাবিতে প্রতিবাদ করতে দেখা গেছে। ২০২০ সালে আন্তর্জাতিক যুব দিবস -এর থিম হল 'ইউথ এনগেজমেন্ট ফর গ্লোবাল অ্যাকশন'। এমন যুব সমাজের কার্যকারীতার বিষয় যা বিশ্বব্যাপী প্রভাব ফেলবে।

প্রতি বছর জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক যুব দিবসের জন্য একটি থিম নির্বাচন করে। তারপরেও, এই থিমের ভিত্তিতে, বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে নানান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ সম্পর্কে যুবকদের মতামতও জানা যায়। তাদেরও পরামর্শ নেওয়া হয়। জাতিসংঘ বিশ্বব্যাপী পরিবর্তন আনতে যুবকদের জড়িত থাকার বিষয়ে আলোকপাত করার জন্য এই দিন একটি সোশ্যাল মিডিয়া প্রচারও শুরু করেছে।