তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে তালা বন্ধ করাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। পরিস্থিতি সামাল দিতে এসে ইটের ঘায়ে রক্তাক্ত হলেন ঘাটাল থানার ওসি দেবাংশু ভৌমিক। আহত হয়েছেন আরও এক পুলিশ কর্মী। ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে, পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটাল থানার অন্তর্গত বরদা রানির বাজার এলাকাতে।ওই এলাকায় তৃণমূলের একটি দলীয় কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার কেউ বা কারা তালা বন্ধ করে দিয়েছিল। তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপির লোকজন এই কাজ করেছে। অভিযোগ অস্বীকার করেছিল বিজেপি। এ থেকেই শুক্রবার সকাল থেকে দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়ায়। সন্ধ্যায় সংঘর্ষের পরিস্থিতি তৈরি হয়।সামাল দেওয়ার জন্য হাজির হয়েছিলেন ঘাটাল থানার ওসি সহ পুলিশকর্মীরা। সন্ধ্যার সময় দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সংঘর্ষ যখন চরম, তখন পরিস্থিতি সামাল দিতে রাস্তায় নামতেই কেউ ইট ছোড়ে পুলিশকর্মীদের দিকে। একটি বড় ইট ওসির মাথায় লাগলে রক্ত ঝরতে শুরু হয় ওসির মাথা থেকে। জখম হন আরও এক পুলিশ কর্মী। এরপরই সঙ্গে থাকা পুলিশকর্মীরা ঘটনাস্থলে তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।

এই ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা থাকায় মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ বাহিনী। অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বিজেপির ঘাটাল সংগঠনিক জেলার সভাপতি অন্তরা ভট্টাচার্য। ফোনে তিনি জানান"বৃহস্পতিবার তৃণমূলের লোকজন আমাদের কর্মীদের মারধর করেছিল কোন কারণ ছাড়াই। ওরাই নিজেদের কার্যালয়ে তালা মেরে পুলিশ দিয়ে আমাদের কর্মীদের ওপর অত্যাচার করেছে। কোনও অপরাধ না করেই আমাদের কর্মীকে মার খেতে হয়েছে পুলিশের হাতে। সন্ধ্যার পর তৃণমূলের লোকজনই পুলিশকে অন্ধকারে রেখে মারপিট করেছে। এখন মিথ্যে অপবাদ দেওয়া হচ্ছে বিজেপির নামে। ভিত্তিহীন অভিযোগ করে আমাদের লোকজনকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।"