শনিবার  পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন ২ নম্বর ব্লকে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে সভা ও মিছিলর আয়োজন ছিল তৃণমূলের পক্ষ থেকে ৷ প্রথমে দাঁতন ২ব্লকের সাউরি থেকে খাকুড়দা পর্যন্ত এনআরসি ও সিএএ-এর বিরুদ্ধে একটি প্রতিবাদ মিছিল করে ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস।এই মিছিলে প্রায় ৭ থেকে ৮ হাজার তৃণমূল কর্মী-সমর্থক অংশগ্রহণ করেন। 

এদিন বিকেলে সাউরি থেকে খাকুড়দা পর্যন্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার রাস্তা অতিক্রম করে মিছিলটি। অবশেষে খাকু্ড়দাতে একটি প্রতিবাদ সভার মধ্য দিয়ে কর্মসূচিটি শেষ হয়।   সভাতে মুখ্যবক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা তৃণমূলের সভাপতি অজিত মাইতি , জেলা নেতা তথা কর্মাধ্যক্ষ শৈবাল গিরি,নারায়ণগড়ের বিধায়ক প্রদ্যুৎ ঘোষ, দাঁতনের বিধায়ক বিক্রম প্রধান সহ আন্যান্যরা।সভা থেকে বিজেপিকে বিভিন্ন ভাবে কটাক্ষ ও ব্যাঙ্গ করে বক্তব্য রাখেন জেলা নেতা বিধায়কেরা ৷ 

এদিন জেলা সভাপতি অজিত মাইতি বলেন,দিলীপ ঘোষ দুদিনের যোগী,সদ্য চারা,গাছও হয়নি ৷ ও যদি এসে আপনাদের এসে বলে আপনারা এখানকার লোক কিনা প্রমাণ নেব,তাহলে নিজের হাত শক্ত থাকলে গালে দুটো কষে থাপ্পড় লাগাবেন ৷ তা না হলে আপনি পশ্চিমবাংলার মানুষই নন৷ ওরা কে, চারটে ল্যাম্প পোস্টে ঝান্ডা লাগিয়ে যদি বলে আমিই সব, তা মেনে নেওয়া যায় না ৷ একটা শপথ নেবেন আপনারা, দিলীপ ঘোষ , নরেন্দ্র মোদী,অমিত শাহ যে যাই বলুক ,কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিনিধিদের কাছে কোনও কাগজ আমরা দেখব না। কোনও কাগজে আমরা সই করব না ৷ জঙ্গী দিয়ে আমাদের সেনাবাহিনীদের মেরে দিল৷ সেনা বাহিনীর রক্তের বিনিময়ে নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসীন হয়েছেন ৷