Asianet News BanglaAsianet News Bangla

এই হরমোনের ক্ষরণেই যৌনমিলনে অনিহা বাড়ছে, ভেঙে না পড়ে জেনে নিন বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ

 একেকজন একেক রকমভাবে যৌনতাকে উপভোগ করে।  বৃষ্টির সঙ্গে রোম্যান্স যেন ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বর্ষাকালে অনেকেই বেশি করে যৌন মিলনে মেতে উঠছেন ।  সমীক্ষায় দেখা গেছে, সারাদিনের কাজের শেষে ক্লান্ত শরীর যখন বিশ্রাম করে তখনই যৌনতাকে উপভোগ করেন কাপলরা। কিন্তু বর্ষাকালে বেশিরভাগ মেয়েদের মেজাজ  ঠিক থাকে না ।

 Effects of hormones on sex drive check out the details BRD
Author
First Published Sep 6, 2022, 11:47 AM IST

যৌনতা এমনই একটা জিনিস যা নিয়ে অনেকেরই ভিন্ন রকমের ফ্যান্টাসি রয়েছে। একেকজন একেক রকমভাবে যৌনতাকে উপভোগ করে। তবে সমীক্ষায় দেখা গেছে, সারাদিনের কাজের শেষে ক্লান্ত শরীর যখন বিশ্রাম করে তখনই যৌনতাকে উপভোগ করেন কাপলরা। এই সময়েই যৌন চাহিদা দ্বিগুণ বেড়ে যায়। সম্প্রতি এক সমীক্ষায় গেছে, বর্ষাকালেই যৌন চাহিদা দ্বিগুন কমে যায়। কারণ মেঘলা দিনেই নাকি অবসাদ গ্রাস করে নারীকে। আর সেই কারণেই সঙ্গীনিকে চরম তৃপ্তি দেওয়ার পরিবর্তে সম্পর্ক ক্রমশ ফিকে হতে থাকে। কিন্তু কেন এমনটা হয়, জানলে চমকে যাবেন।

বৃষ্টির সঙ্গে রোম্যান্স যেন ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বর্ষাকালে অনেকেই বেশি করে যৌন মিলনে মেতে উঠছেন । কিন্তু সমীক্ষায় দেখা গেছে,  বর্ষাকালে বেশিরভাগ মেয়েদের মেজাজ  ঠিক থাকে না  । সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্যাচপ্যাচে বর্ষার  দিনে ১৪ শতাংশের কম মহিলার মুড ঠিক থাকে না। তবে শুধু মহিলারাই নন, পুরুষদের শরীরেরও এর প্রভাব পড়ে।  কারণ বর্ষাকালে পুরুষের শরীরে  টেস্টোস্টেরনের ক্ষরণ কমে যায়। আর সেই কারণের জন্যই  নারী ও পুরুষ উভয়েরই যৌন উত্তেজনা ক্ষীণ হয়ে পড়ে। যার ফলে কামশক্তি কমে আসে। সিজনাল অ্যাফেক্টিভ ডিসঅর্ডার অর্থাৎ  বছরের নিদির্ষ্ট  কিছু ঋতুতে অবসাদ মনকে গ্রাস করে। আর সেই ঋতুর তালিকায় রয়েছে বর্ষাকাল।  কম আলোয় মস্তিষ্ক থেকে সেরোটোনিনের ক্ষরণ কমে, যার ফলে যৌন উত্তেজনা প্রশমিত হয়। এবং সেই কারণেই  যৌন মিলনও শিথিল হতে থাকে। অপর দিকে সেরোটোনিনের ক্ষরণ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরুষ ও নারীর কামশক্তিও বেড়ে যায়। 

 

 Effects of hormones on sex drive check out the details BRD

 

একঘেয়ে কাজ করে করে ক্লান্ত দুজনেই, তার উপর প্যাচপ্যাচে গরম।  শরীর ও  মন দুই-ই ক্লান্ত। কিন্তু অন্ধকার নামলেই কি স্বস্তির পাশাপাশি বাড়ছে যৌন চাহিদাও।  কারণটা আপনি একা নন, সমীক্ষা বলছে শরীর বেশি ক্লান্ত থাকলেই এমনটা অনেকেরই হয়ে থাকে। এমনকী  বিছানায় শোবার সময় শরীরে একটা সুতোও রাখতে ইচ্ছা করে না। এটাই কি কারণ নাকি এর পিছনে রয়েছে অন্য কোনও কারণ। সেক্স পজিশন থেকে নিজেদের ব্যক্তিগত অভিব্যক্তি সব কিছুই ধীরে ধীরে বদলানোর চেষ্টা করুন। যৌন মিলনের সময় সমস্ত  কিছু ভুলে সেই সময়টাকে উপভোগ করুন। সারাদিন কাজের পর ক্লান্ত শরীরে এনার্জি জোগাতে মেতে উঠুন শরীরী খেলায়। বাড়িতে একটানা থাকতে থাকতে অনেকেই মানসিক চাপ, অবসাদে ভুগছেন। বিশেষজ্ঞদের দাবি, যৌন মিলন করলে শরীর ও মন ভাল হয়ে যায়।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios