সম্পর্ক নিয়ে প্রত্যেকেরই আলাদা আলাদা মত রয়েছে। নর্মাল রিলেশন হোক কিংবা লং ডিসট্যান্স, লকডাউনের জেরে সব সম্পর্কেই যেন ভাটা পড়েছে। যারা একে অপরের থেকে দূরে রয়েছেন তাদের প্রেম তো দূর, দেখা করা নিয়েও সমস্যা শুরু হয়ছচে। আবার অন্যদিকে যারা নিয়মিত দেখা করত, তাদেরও দেখা করা বন্ধ হয়েছে। কবে দেখা হবে আবার, সেইদিকেই উঠছে প্রশ্নচিহ্ন। এহেন পরিস্থিতিতে  সম্পর্কে ফাটল, ব্রেক আপের সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে। কিন্তু সমীক্ষা বলছে,  এই সমস্যা গুলো পুরুষদের সামান্য ভুলে বেশি বাড়ছে। পুরুষরা এই কাজগুলি সঠিক মনে করলেই এই কারণেই নারীরা দূরে চলে যাচ্ছে পুরুষদের কাছ থেকে। যার ফলে সম্পর্কে ছেদ হচ্ছে। একনজর দেখে নিন পুরুষদের কোন ভুলগুলির কারণে চিরতরে সম্পর্কে ছেদ ঘটছে।

আরও পড়ুন-বয়স ৪০ পেরিয়েছে, প্রতিদিনের তালিকা থেকে যেন বাদ যায় না এই ৫ জিনিস...

আরও পড়ুন-শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে 'যৌনমিলন'ই হল অব্যর্থ ওষুধ, ৫ টিপসেই হবে সমাধান...

বেশি আগলে রাখা

 সবসময়েই আমাকে সময় দিতে হবে, এই ধরনের চিন্তা বেশিরভাগ পুরুষদেরই থাকে। কিন্তু এটা হচ্ছে মোক্ষম ভুল। আবার অনেকেই হয়তো সারাদিনই ম্যাসেজ কিংবা ফোনেই ব্যস্ত রয়েছেন। নিজের মূল্যটা বোঝার আগেই আপনি নিজেই তার কাছে বোঝা হয়ে উঠছেন।


অতিরিক্ত চিন্তা

আপমার প্রেমিকা কখন , কী করছে তার সব আপডেট আপনার চাই, এটাও একটা মারাত্মক ভুল। সারাক্ষণ তাকে নিয়ে চিন্তা করতে গিয়েই নিজের মূল্যবান সময়টা আপনি হারিয়ে ফেলছেন।

ডমিনেট করা

অতিরিক্ত কোনও কিছুই কারোর ভাল লাগে না। সব বিষয়েই ডমিনেট করা কিংবা কতৃত্ব খাটানো কেউই মেনে নিতে পারেন না। লোকের সামনে ফোন চেক করা, বন্ধুদের সামনে অপমান করা এই ধরনের আচরণ মেয়েরা এমনিতেই দূরে চলে যায়।

নিজের ঢাক পেটানো

অনেক ছেলেই রয়েছে, যারা কিনা নিজের ঢাক নিজে পেটাতে পছন্দ করে। নিজের উপার্জন থেকে শুরু করে কোনও মেয়ে আপনাকে দেখে কী বলে এই ধরনের কথা বলে নিজেকে উচু দেখতে অনেকই পছন্দ করে। কিন্তু অনেকেই এগুলি পছন্দ করে না। প্রেমিকা না বুঝে শুধু নিজেকে নিয়ে আলোচনা করলে অচিরেই সেই সম্পর্কে ভাঙন ধরবে।

ভবিষ্যত পরিকল্পনা

ভবিষ্যত নিয়ে অনেকেরই  অনেক ধরনের পরিকল্পনা থাকে। কিন্তু দুদিনেক আলাপেই অনেকে বিয়ে, সন্তানের পরিকল্পনাতে চলে যান। এতে আপনাকে সহজেই এড়িয়ে যাবে মেয়েরা। সুতরাং সম্পর্কে জড়ানোর পর এই ছোট্ট ভুলেই সঙ্গীরা পুরুষদের ছেড়ে চলে যায়। তাই সম্পর্কে জড়ানোর আগে সাবধান।