ভোট যুদ্ধে তিনি পরাজিত। কিন্তু তারপরেও  হার মানতে নারাজ। আবারও লড়াই করে ফিরে আসার বার্তা দিলেন অনুগামী। তিনি প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। অনুগামীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেছেন, ২০২৪ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি আংশ গ্রহন করবেন। সেক্ষেত্রে কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছেন তাঁর স্বাস্থ্য। ট্রাম্পই বলেছেন তাঁর স্বাস্থ্য যদি ভালো থাকে তবেই তিনি আগামী রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করবেন। ট্রাম্পের মেদ ঝরানো চেহারাই সেই জল্পনা উস্কে দিচ্ছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি প্রতিবেদন অনুযায়ী ট্রাম্প তাঁর সহযোগীদের বলেছেন ২০২০ সালে তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের কাছে পরাজিত হয়েছেন। কিন্তু তাঁর স্বাস্থ্য যদি ভালো থাকে তাহলে তিনি ২০২৪ সালে তিনি আবারও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হবেন। প্রাক্তন মার্কিন রিয়ালিটি স্টার রেপ রনি জ্যাকসন স্থানীয় রিপোর্টরকে আগামী নির্বাচনে সম্পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে ট্রাম্প প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলেও জানিয়েছেন। তারপর থেকে ক্রমেই এই জল্পনা ছড়িয়ে পড়ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। জ্যাকসন বলেছেন তিনি গুরুত্ব সহকারে পুরো বিষয়টি বিবেচনা করেছেন। জ্য়াকসন জানিয়েছেন, সম্ভবত ট্রাম্প আরও একবার হোয়াইট হাউসে যাওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছেন। 

তবে এই রিরোর্টগুলি এমন সময় প্রকাশ করা হয়েছে যখন ট্রাম্প রীতিমত ঝরিয়ে ফেলেছেন তাঁর বাড়তি মেদ। সূত্রেরখবর প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্টের ওজন প্রায় ১৫ পাউন্ড কমে গেছে। তিনি তাঁর পছন্দের এমঅ্যান্ডএম মিষ্টি ও অন্যান্য স্ন্যাক্স খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। পছন্দের প্রিয় ডায়েট কেক থেকেও মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছেন ট্রাম্প। ডায়েট চার্ট মেনে চলা আর গলফিং সেশন মেনে চলার কারণেই ট্রাম্পের শরীর থেকে ঝরে গেছে বাড়তি মেদ। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। করোনা মুক্ত হওয়ার 
পর থেকে নিজের স্বাস্থ্য সম্পর্কে বিশেষ যত্নবান হয়েছেন ট্রাম্প। 

ট্রাম্প ফক্স নিউজকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারেও জানিয়েছেন ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি অংশ নিতে চান। আর এটিকে তিনি বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন। ট্রাম্প জানিয়েছেন অধিকাংশ রিপাব্লিকানের সমর্থন রয়েছে তাঁর প্রতি।