ছেলেকে বাঁচাতে মরিয়া মা-বাবা, লিখলেন দিদিকে চিঠি

এক বাইক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয় মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের চিতলিয়া গ্রামের বাসিন্দা দেবা দাস। দুর্ঘটনার জেরে মাথায় চোট পায় সে। এর পরেই মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে এই কিশোর। এখন তারই চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন লক্ষাধিক টাকা। দরিদ্র পরিবারের নেই সে সামর্থ। ছেলেকে বাঁচাতে এখন মরিয়া দেবার মা-বাবা। ছেলের কথা বলতে গিয়ে চোখে জল তাঁদের, জানালেন ছেলের চিকিৎসা করানোর সামর্থ তাদের নেই, আবেদন করেও মেলেনি স্বস্থ্যসাথী কার্ড। পরিবারটির অসহায়তার কথা শুনে তাঁদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন তৃণমূলের জেলা সাধারণ সম্পাদক বুলবুল খান। অন্যদিকে, এ প্রসঙ্গে চাঁচল মহকুমা শাসক কল্লোল রায় জানিয়েছেন ছেলেটির পরিবার যাতে শীঘ্রই স্বাস্থ্যসাথী কার্ড পায় তাঁর চেষ্টা চলছে।

| Aug 12 2021, 11:50 AM IST

Share this Video
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

এক বাইক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয় মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের চিতলিয়া গ্রামের বাসিন্দা দেবা দাস। দুর্ঘটনার জেরে মাথায় চোট পায় সে। এর পরেই মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে এই কিশোর। এখন তারই চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন লক্ষাধিক টাকা। দরিদ্র পরিবারের নেই সে সামর্থ। ছেলেকে বাঁচাতে এখন মরিয়া দেবার মা-বাবা। ছেলের কথা বলতে গিয়ে চোখে জল তাঁদের, জানালেন ছেলের চিকিৎসা করানোর সামর্থ তাদের নেই, আবেদন করেও মেলেনি স্বস্থ্যসাথী কার্ড। পরিবারটির অসহায়তার কথা শুনে তাঁদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন তৃণমূলের জেলা সাধারণ সম্পাদক বুলবুল খান। অন্যদিকে, এ প্রসঙ্গে চাঁচল মহকুমা শাসক কল্লোল রায় জানিয়েছেন ছেলেটির পরিবার যাতে শীঘ্রই স্বাস্থ্যসাথী কার্ড পায় তাঁর চেষ্টা চলছে।

null