বাংলায় নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর সেই সময় দিল্লিতে দলীয় বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সমালোচনায় সরব হল কংগ্রেস। কংগ্রেসের অভিযোগ, দিল্লিতে থেকে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের পরিবর্তে প্রধানমন্ত্রী ব্যস্ত রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের ভোট প্রচারে। একই সঙ্গে গোটা ঘটনাকে মর্মান্তিক অবাস্তবতা বলেও অভিযোগ করেছেন কংগ্রেস। 

কংগ্রেসের প্রবীন নেতা তথা দলের মুখপাত্র পি চিদম্বরম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর তাঁর কাজ করা উচিৎ। দিল্লিতে বসে রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনা করে করোনাভাইরাসের এই মহামারির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা ও সমন্বয় গড়ে তোলা জরুরি। কিন্তু তিনি দিল্লিতে থাকার পরিবর্তে একাধিক রাজ্যে ঘুরে ঘুরে ভোট প্রচার করছেন। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গ যখন দেশে আছড়ে পড়ছে তখন তিনি পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন জনসভায় ভাষণ দিচ্ছেন। যা খুবই আবাক করেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। 

সংবাদ সংস্থা পিটিআই  জানিয়েছে, প্রবীন কংগ্রেস নেতা প্রধানমন্ত্রীর আচরণকে উষ্মা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলছেন, পশ্চিমবঙ্গের মানুষও এই বিষয়টি লক্ষ্য করছেন। করোনা মোকাবিলার বদলে রাজনৈতিক ভাষণ দেওয়া শ্রেয় নয় বলেও জানিয়েছেন তিনি। এই সময় ভ্যাকসিন, অক্সিজেন ও ভেন্টিলেটরগুলির দাবি জানাচ্ছে একাধিক রাজ্য। প্রধানমন্ত্রীর উচিৎ সেই দাবিগুলি নিয়ে আলোচনা করা। এটি প্রধানমন্ত্রীর অন্যতম কাজ বলেও দাবি করেছেন তিনি। চিদম্বরমের এই অভিযোগের পরেই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে, এদিন রাতেই দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনায় বসবেন তিনি।