বিধানসভা নির্বাচনের আগে ফের দলের হয়ে সামনের সারিতে এসে লড়াই করছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দীর্ঘ দিনের সঙ্গী মদন মিত্র। তা সে নেতাই দিবসে সরাসরি শুভেন্দু সহ অধিকারী পরিবারকে আক্রমণ করা হোক, নির্বাচনে শাসক দলের হয়ে নানা জায়গায় প্রচার সভা হোক, সব জায়গাতেই আগ্রাসী মেজাজে ওপেনিং ব্যাটসম্যানের মত ব্যাট করছেন মদন মিত্র। নিজস্ব ভঙ্গিতে বিপক্ষকে আক্রমণও করছেন তিনি।

"

রবিবার একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে ফের স্বমহিমায় পাওয়া গেল মদন মিত্রকে। বিপক্ষকে হুঁশিয়ারী দিলেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীর সুপারহিট সিনেমা 'ফাটাকেষ্ট'-র ডায়লগ দিয়ে। মদন মিত্র বলেন, ২২ গজে খেলা হবে না, এবার খেলা হবে কাঞ্চনজঙ্ঘা থেকে বনগাঁ-ক বর্ডার এবং এই পিচেই খেলব। আর আমরা রেডি আছি। ওয়ার্মআপ করে তৈরি আছি। রোজ বলছে না, মারব, মারব, মেরে হাড়-গোর ভেঙে দেব। আমরা মারব না, আমরা বলব, মারব এখানে, বাকিটা পাবলিক বলবে।'

"

মদন মিত্রের এই বক্তব্য রীতিমত শোরগোল ফেলে দিয়েছে বঙ্গ রাজনীতিতে। প্রতিপক্ষকে যেইভাবে আক্রমণ করেছেন তৃণমূল নেতা, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্কও। এবারের নির্বাচন  সুষ্ঠুভাবে করতে নানা পদক্ষেপের কথা বলেছে নির্বাচন কমিশন। তবে নির্বাচন কতটা সুষ্ঠুভাবে হবে তা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে বিরোধী দলগুলি। আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ও। নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক ব্যক্তিরা যদি এই ভাষায় কথা বলেন তা হলে নির্বাচন কতটা শান্তিপূর্ণ হবে তা নিয়ে প্রশ্ব চিহ্ন থেকেই যাচ্ছে।