একেবারে শিয়রে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি বাম-কং-আইএসএফ'এর ব্রিগেড জনসভা হয়ে গিয়েছে। সামনে আসছে এইবারের ভোটে শাসক দল তৃণমূলের প্রধান প্রতিপক্ষ বিজেপির ব্রিগেড সমাবেশ। আরও স্পষ্টভাবে বললে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ব্রিগেড জনসভা। মোদীর সভার ঔজ্জ্বল্য ম্লান করতে অভিনব পন্থা নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্থানীয় স্তরের নেতাদের কাছে তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতাদের পরিষ্কার বার্তা - মোদী আসার আগেই কলকাতা করে দিতে হবে তৃণমূলময়।

এদিন কলকাতার সব স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের বলা হয়েছে, ৭ মার্চ কলকাতায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমাবেশের আগেই গোটা শহরকে মুড়ে দিতে হবে তৃণমূল কংগ্রেসের পোস্টার, ব্যানার এবং দলীয় পতাকায়।  নরেন্দ্র মোদী এসে যেন শুধু তৃণমূলেরই রঙ দেখতে পান। এই জন্য এদিন কলকাতা পুরসভার বিদায়ী সব তৃণমূল কংগ্রেস পুরপিতাদের ১৫০০ করে দলীয় পতাকাও দেওয়া হয়েছে।

দলীয় কর্মীদের তৃণমূল শীর্ষনেতারা বলেছেন, নির্বাচনের কারা কোথায় প্রার্থী হবেন, সেই বিষয়টি দলীয় প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কর্মীদের কারা প্রার্থী হবেন সেই সম্পর্কে উদ্বিগ্ন না হয়ে, যিনিই প্রার্থী হবেন, তাঁর হয়ে প্রচারের দিকে মনোনিবেশ করতে বলা হয়েছে।  সেইসঙ্গে, ছড়িয়ে দিতে হবে দলের নির্বাচনী স্লোগান, 'বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়'। বিশেষ করে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে যেসব জায়গায় বিজেপি ভালো ফল করেছিল, সেই জায়গাগুলিতে বেশি করে প্রচার করতে বলা হয়েছে।