'আমি যদি ২১ জুলাই স্যাক্রিফাইস করতে পারি, তাহলে আপনাদেরও টুকটাক মিটিং মিছিল বাদ দিতে হবে'। শুক্রবার নবান্ন থেকে বিরোধী দলগুলির রাজনৈতিক কর্মসূচি বাতিল করার জন্য এই ভাষাতেই কড়া সতর্কতা জারি করলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলন করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  অভিযোগ করেন, অনেক রাজনৈতিক দলই লকডাউন বিধি মানছে না। লকডাউনের মধ্যেই তারা এদিক ওদিক মিছিল মিটিং সভা করে চলেছে। এসব করা যাবে না, বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। যদি এরপরও কোনও রাজনৈতিক দল রাজনৈতিক সমাবেশ করে, তাহলে বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের বিধি অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যদি আমি বিধি ভাঙি, তাহলে আমার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এরপরই তিনি জানান, ২১ জুলাই-এর শহিদ দিবসের সমাবেশ এবার করা হবে না। তিনি তাঁর দলের এই বড় কর্মসূচি তিনি করোনাভাইরাস মহামারির প্রকোপে বাতিল করছেন। তিনি আরও জানান, ৩১ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন চলার সময়ে লোকজনদের বাড়ির বাইরে থাকার সময় এক ঘন্টা বাড়ানো হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত ভোর ৫টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত বাইরে থাকার অনুমতি ছিল। কিন্তু, রেস্তোরাঁয় খাওযা-দাওয়া করতে গিয়ে অনেকেই ৯টার মধ্যে বাড়ি ঢুকতে পারছেন না। তাই এখন থেকে ভোর ৫টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বাইরে থাকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।