মালদহে প্রায় ৫৫ লক্ষ টাকার জালনোট সহ গ্রেফতার ২ পাচারকারী। ইংরেজবাজার থানার ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক সংলগ্ন এলাকার ঘটনা। টাকা পাচারের অভিযোগে ধৃত সুফি আলম (৩২) ও রহমান শেখ (২৮)। ধৃতদের বাড়ি মুর্শিদাবাদের ফরাক্কা এলাকায়। আটক করা হয়েছে একটি ১০ চাকার লরি।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক সংলগ্ন সুস্থানী মোড় এলাকায় লরিটিকে আটক করে। লরির সিটের নীচ রাখা ব্যাগ থেকে উদ্ধার হয় ৫৪ লক্ষ ৮৯ হাজার ৮০০ টাকা। উদ্ধার হওয়া নোটগুলি সব ৫০০,১০০ ও ২০০ টাকার। লরিতে করে টাকাগুলি কোথায় পাচার করা হচ্ছিল তা তদন্ত করে দেখছে  পুলিশ।

এর আগে বহুবার সীমান্তবর্তী জেলা মালদহে একাধিকবার জালনোট পাচারের ঘটনা ঘটেছে। জাল নোট পাচারকারী একাধিক ব্যক্তি পুলিশের জালে ধরাও পড়েছে। এবার উদ্ধার হওয়া প্রায় ৫৫ লক্ষ টাকা কোথায় পাচার করা হচ্ছিল সেটাই বড় প্রশ্ন পুলিশের কাছে। বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী জেলা হওয়ায় মালদহ বরাবরই চোরাচালানকারীদের স্বর্গরাজ্য। পাকিস্তান থেকে নেপাল ও বাংলাদেশ হয়ে এদেশ পর্যন্ত জাল নোটের একটি পাচার রুট রয়েছে।