Asianet News Bangla

ফের শিক্ষকের হাতে আক্রান্ত ছাত্রী, হাসপাতালে গিয়ে দোষ স্বীকার অভিযুক্তের

  • নদিয়ায় ছাত্রীকে মারধর শিক্ষকের
  • টাস্ক শেষ না করায় ভাঙল হাত
  • ছাত্রীকে দেখতে হাসপাতালে অভিযুক্ত
  • অবশেষে ভুল স্বীকার শিক্ষকের
Beating the teacher to the student, After that accused admitted to the hospital
Author
Kolkata, First Published Sep 17, 2019, 2:07 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ফের শিক্ষাক্ষেত্রে মারধরের ঘটনা। এবার শিক্ষকের হাতে আক্রান্ত চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রী। ঘটনাস্থল নদিয়ার  গাংনাপুরের আঁইশমালি। এখানকার ইউনাইটেড প্রাইমারি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী জ্যোতি পারে এখন ভর্তি রয়েছে রাণাঘাট মহকুমা হাসপাতালে। 

অন্যান্য দিনের মতই স্কুলে গিয়েছিল জ্যোতি। অভিযোগ আঁকার টাস্ক শেষ করতে না পারায় তাকে বেধড়ক মারধর করেন শিক্ষক। ভেঙে দেওয়া হয় হাত। পিঠেও গুরুতর আঘাত লাগে জ্যোতির। খবর পেয়ে স্কুলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে পরিজনরা। গুরুতর আহত ছাত্রীটিকে ভর্তি করতে হয় রাণাঘাট মহকুমা হাসপাতালে। 

 চিকিৎসাধীন ছাত্রীটিকে দেখতে হাসপাতালে আসেন অভিযুক্ত শিক্ষক।  তাকে দেখেই হাসপাতালে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে জ্যোতি পারের পরিজনরা। শেষ পর্যন্ত নিজের  কৃতকর্মের জন্য দোষ স্বীকার করেন নির্মল মণ্ডল। ছাত্রীটির চিকিৎসা খাতে খরচ বহনেরও আশ্বাস দেন তিনি। এদিকে মেয়েক মারধরের ঘটনায় ইতিমধ্যে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে গাংনাপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে জ্যোতির পরিবার। 
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios