মোবাইল ফোন চুরি হলে বা হারিয়ে গেলে অনেকেই তা ফিরে পাওয়ার আশা ছেড়ে দেন। শুধুমাত্র নিয়ম রক্ষার জন্যই থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ফোনের মালিকরা। কিন্তু হারানো বা খোয়া যাওয়া ফোন ফিরে পাওয়ার ক্ষেত্রে চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেট সাম্প্রতিক কালে যে সাফল্য পেয়েছ, তাতে মোবাইল হারালে পুলিশের উপরে ভরসা করাই যায়। 

গত দু' মাসে মোট ২২০টি হারানো মোবাইল ফোন তাদের মালিকদের হাতে তুলে দিয়েছে হুগলি জেলা পুলিশ। সম্প্রতি সাংবাদিক বৈঠক করে এমনই দাবি করেছেন চনিদনগরের পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবীর। তিনি জানান, গত দু' মাসে চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেট-এ ফোন হারানোর ৭৩৮ টি অভিযোগ দায়ের হয়েছিল। সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই তদন্তে নেমে দুশোর বেশি ফোন উদ্ধার করা হয়। বাকি ফোনগুলিরও খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। ফোন পেয়ে স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত ফোনের মালিকরা। পুলিশ যে তৎপর হলে অনেক মানুষই এভাবে উপকৃত হবেন, সেকথাও বলেন প্রত্যেকে। 

তবে শুধু মোবাইল ফোনই নয়, ই ওয়ালেট-এ আর্থিক লেনদেন করতে গিয়ে প্রতারণার শিকার হওয়া অভিযোগকারীদের হাতেও সবমিলিয়ে খোয়া যাওয়া পঞ্চাশ লক্ষ টাকা তুলে দেওয়া সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কমিশনার। যদিও মোবাইল ফোন বা অনলাইন প্রতারণার অভিযোগের ঘটনায় কাউকেই গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ। এই তথ্যে যদিও অবাক ভুক্তভোগীরা।