কখনও আর্থিক পুরস্কার, কখনও আবার লটারি জেতার টোপ। এমনই অছিলায় বহু মানুষের অ্যাকাউন্ট থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা সরিয়ে নেওয়ার অভিযোগ আসছিল সিআইডি-র কাছে। তদন্তে নেমে চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছেন গোয়েন্দারা। দেখা গিয়েছে, যে নম্বরগুলি থেকে ফোন করে প্রতারণা করা হয়েছে, সেগুলি সবই পাকিস্তানের। এই ধরনের প্রতারণার ঘটনা এত বেশি সংখ্যায় ঘটছে যে হেল্পলাইন নম্বর চালু করতে বাধ্য হয়েছে সিআইডি।

রাজ্য গোয়েন্দা সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, যে নম্বরগুলি থেকে ফোন করে এই ধরনের প্রতারণা বেশি হচ্ছে, সেগুলি সবই +৯২ দিয়ে শুরু। +৯২ হল পাকিস্তানের আইএসডি কোড। ঠিক যেমন ভারতের আইএসডি বা ডায়ালিং কোড +৯১। 

অভিযোগ, এই +৯২ দিয়ে শুরু হওয়া নম্বর থেকে ফোন করে নানা রকম টোপ দিচ্ছে প্রতারকরা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মোটা টাকার আর্থিক পুরস্কারের টোপ দিয়ে প্রতারিতদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বা এটিএম কার্ডের পিন নম্বরের মতো তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে। অনেক সময় আবার ফোন করে লটারিতে পুরস্কার জেতার কথা বলেও প্রতারণা করা হচ্ছে। 

সিআইডি-র তরফে জানানো হয়েছে, +৯২ দিয়ে শুরু হওয়া নম্বর থেকে ফোন এলে তা না ধরতে। এমন ফোন পেলে প্রয়োজনে সিআইডি-র হেল্পলাইন নম্বরেও অভিযোগ জানাতে পারেন সাধারণ মানুষ। গত কয়েকমাসে এই ধরনের অসংখ্য প্রতারণার অভিযোগ পাওয়ার পরেই বাধ্য হয়ে হেল্পলাইন নম্বর চালু করেছে সিআইডি। জানা গিয়েছে, গোটা দেশেই প্রতারণার ফাঁদ ফেলে সাধারণ মানুষের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারকরা। আপাতত সিআইডি তিনটি হেল্পলাইন নম্বর চালু করেছে। সেগুলি হল ১৪৪০৭, ৭৯৮০১২৪৪৮৭ এবং ০৩৩২৪৪৯০৫৩।