বোনাস নিয়ে ঝামেলা, তাই পুজোর মুখে বন্ধ হয়ে গেল মালবাজারের সাইলি চা বাগান। কর্মহীন হয়ে পড়লেন এক হাজার শ্রমিক। মধ্যরাতে  সাসপেনশন অফ ওয়ার্কের নোটিস ঝুলিয়ে বাগান ছেড়ে চলে যায় কর্তৃপক্ষ।

এবছর ডুয়ার্সের সমস্ত চা বাগানে ১৮.৫০ শতাংশ হারে বোনাস দেওয়া হবে বলে ঠিক হয়েছিল। কিন্তু সাইলি চা বাগান কর্তৃপক্ষ তা দিতে রাজি ছিলেন না। কর্তৃপক্ষের তরফে ১৩.৫৫ শতাংশ হারে বোনাস দেওয়ার কথা বলা হয়। যদিও পরে এই হারেও বোনাস দেওয়া সম্ভব নয় বলে জানায় বাগান কর্তৃপক্ষ। এর পরেই চা বাগানের শ্রমিকরা ম্যানেজার সহ বাগানের অন্যান্য আধিকারিকদের ঘেরাও করে রাখেন। শ্রমিকদের এই ঘেরাওতে পাশে দাঁড়ায় একাধিক শ্রমিক ইউনিয়নও।

মাল থানার পুলিশ গিয়ে বাগান ম্যানেজার সহ অন্যান্যদের রাতে ঘেরাও মুক্ত করে। এরপরেই আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির অভিযোগ তুলে বাগানে সাসপেনশন অব ওয়ার্কের নোটিস ঝুলিয়ে দেয় কর্তৃপক্ষ। পুজোর আগে কাজ হারিয়ে তাই পঞ্চমীতেই বিষাদের সুর বাজছে ডুয়ার্সের সাইলি চা বাগানে।