কৌশিক সেন, রায়গঞ্জ:  করোনা সংক্রমণেও রেহাই নেই! খোদ পুলিশ সুপারের নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলে চিকিৎসার জন্য টাকা চাইছে সাইবার প্রতারকরা! ঘটনাটি নজরে আসার পর সুপার নিজে তাঁর ফেসবুকে অ্যাকাউন্টে পোস্ট দিয়ে সাধারণ মানুষকে সতর্ক করেছেন। তদন্তে নেমেছে জেলা পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগ।

আরও পড়ুন: টানা আটদিন ভেন্টিলেশনে, করোনাভাইরাসকে হারিয়ে দিল দুই মাসের শিশু

করোনা আতঙ্ক, সাপ্তাহিক লকডাউন চলছে রাজ্যে। সাধারণ মানুষ যখন গৃহবন্দি, তখন লকডাউন সফল করতে পথে নেমেছেন পুলিশকর্মীরা। ফলে যা হওয়ার, তাই হচ্ছে। নিচুতলার কর্মীরা তো বটেই, করোনা সংক্রমণে শিকার হচ্ছেন রাজ্য ও জেলা পুলিশের পদস্থ আধিকারিকরাও। গত মাসের শেষের দিকে করোনায় আক্রান্ত হন আসানসোল-দুর্গাপুরের পুলিশ কমিশনার সুকেশ জৈন। সেই তালিকায় নাম উঠেছে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার সুপার সুমিত কুমারেরও। ১৫ অগাস্ট, স্বাধীনতা দিবসে সে খবর প্রকাশ্যে আসে। 

আরও পড়ুন: জলের তোড়ে ফের ভাঙল বিদ্যাধরী নদীর বাঁধ, হাড়োয়ায় বন্যার আতঙ্ক

এদিকে করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরে পুলিশ সুপারের ছবি ও নাম দিয়ে একটি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে ফেসবুকে। এমনকী, সেই অ্যাকাউন্ট পোস্ট দিয়ে তাঁর চিকিৎসার জন্য টাকাও চাওয়া হচ্ছে! ঘটনাটি নজর এড়ায়নি নেটিজেনদের। পুলিশের দ্বারস্থ হন অনেকেই। কারা এমন কাজ করল? তদন্তে নেমেছে রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার সাইবার ক্রাইম শাখা। নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে পোস্ট দিয়ে সাধারণ মানুষকে বার্তা দিয়েছে রায়গঞ্জের পুলিশ সুপার সুমিত কুমার।