মাত্র ২,২০০ টাকার জন্য খুন হতে হল নদিয়ার সুখেন সর্দারকে। নদিয়ার নাকাশিপাড়ার পুরাতন ভোলাডাঙায় বাড়ি বছর ছাব্বিশের সুখেনের।  পেশায় চা বিক্রেতা বাবলু বিশ্বাসকে ২,২০০ টাকা ধার দিয়েছিল সুখেন। সেই টাকার জন্যই তাঁকে অকালে মরতে হল বলে অভিযোগ সুখেনের পরিজনদের। 

কয়েকদিন আগে বাবলুর থেকে পাওনা টাকা ফেরত চেয়েছিল সুখেন। এই নিয়েই দুজনের মধ্যে বচসা হয়। মঙ্গলবার রাতে বাবলু ফোন করে সুখেনকে টাকা নিয়ে যেতে বলে। অভিযোগ, তারপর থেকে আর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না সুখেনের। 

বুধবার সকালে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক সংলগ্ন ঝোপ থেকে উদ্ধার হয় সুখেন সর্দারের দেহ। নাকাশিপাড়া থানার পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। সুখেনের পরিবারের অভিযোগ, পাওনা টাকার জন্যই তাঁকে ছুরি মেরে খুন করে বাবলু। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত বাবলু বিশ্বাস। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।