Asianet News BanglaAsianet News Bangla

রামকৃষ্ণ আশ্রমের সামনে মদ্যপানের প্রতিবাদ, সন্ন্যাসীর গলায় জবরদস্তি মদ ঢেলে চম্পট দুষ্কৃতীদের

কয়েকজন দুষ্কৃতী শ্রী শ্রী রামকৃষ্ণ আশ্রমের প্রাঙ্গণে বসে মদ্যপান করছিল। তারই প্রতিবাদ করেছিলেন আশ্রমের সন্যাসী বরুণানন্দ মহারাজ। 

Miscreants forcibly poured alcohol on the monk throat bpsb
Author
Kolkata, First Published Aug 19, 2021, 3:39 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আশ্রম চত্বরে বসে মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় এক সন্ন্যাসীর (monk) মুখে (throat) জোর করে মদ (alcohol) ঢেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠল কয়েকজন দুষ্কৃতীর (Miscreants) বিরুদ্ধে । ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের রামপুরহাট পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ব্রাহ্মণী গ্রামে। আশ্রমের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বুধবার দুপুরে কয়েকজন দুষ্কৃতী শ্রী শ্রী রামকৃষ্ণ আশ্রমের প্রাঙ্গণে বসে মদ্যপান করছিল। তারই প্রতিবাদ করেছিলেন আশ্রমের সন্যাসী বরুণানন্দ মহারাজ। 

নিগৃহীত সন্ন্যাসী বলেন, "আমি ওদের বলেছিলাম আশ্রমের দরজার সামনে ওসব পান করো না। কারণ পাশেই মন্দির রয়েছে। এই কথা বলা মাত্র ওরা আমার মুখ চেপে ধরে মুখে মদ ঢেলে দেয়। অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। আমি চিৎকার শুরু করলে তারা পালিয়ে যায়। যাওয়ার সময় হুমকি দিয়ে যায় কাউকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলা হব। ভয়ে কাউকে বিষয়টি জানাতে পারেননি।

বিষয়টি জানাজানি হতেই এলাকার মানুষ সন্ন্যাসীর পাশে দাঁড়ান। সন্ধ্যার দিকে স্থানীয় মানুষজনের সঙ্গে তিনি রামপুরহাট থানায় যান। রামপুরহাট থানায় মৌখিকভাবে জানান। তিনি বলেন, আমি আশ্রমে একা থাকি। পূজাঅর্চনা করে দিন কাটে। বুধবার একাদশীর উপবাস করেছিলাম। কিন্তু দুষ্কৃতীরা আমার মুখে মদ ঢেলে উপবাস ভঙ্গ করে দিল।

বিজেপির পক্ষ থেকে এই ঘটনার নিন্দা করে দোষীদের গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়েছে। দলের জেলা সভাপতি ধ্রুব সাহা বলেন, তৃণমূলের আমলে দুষ্কৃতীদের তাণ্ডব বেড়ে গিয়েছে। এরা ধর্মীয়স্থানেও মদ্যপান করতে ছাড়ে না। অবিলম্বে দোষীদের ধরতে হবে।

তৃণমূলের রামপুরহাট শহর সভাপতি সৌমেন ভকত বলেন, একটা ঘটনা ঘটেছিল। অভিযুক্তরা ক্ষমা চেয়ে নিয়েছে। বিষয়টি মিটে গিয়েছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios