ঝাড়গ্রাম জেলার বেলিয়াবেড়া গ্রামের  ঝাড়গ্রাম ননিবালা বিদ্যালয়ের দ্বাদশ শ্রেণির মেধাবী ছাত্র কমলেশ ঘোষ। কালের পরিহাসে বর্তমানে এশিয়ান ক্যান্সার ইনস্টিটিউট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কমলেশ। পরিবারকে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, কমলেশ-এর চিকিৎসার জন্য  খরচ হবে ৯ লক্ষ টাকা। তার বাবা যুগল ঘোষ চাষবাস করেন। ফলে দরিদ্র ওই পরিবারের পক্ষে এই অর্থ জোগারে অক্ষম।

 কমলেশের চিকিৎসার খরচ জোগাতে তার পরিবার অর্থ সাহায্যের আবেদন নিয়ে দ্বারস্থ হয় মেদিনীপুর শহরের ছাত্র সংগঠনের কাছে। তাতেই কাজ হয়। তারাই দীর্ঘ কয়েকদিন ধরে মেদিনীপুরের রাজপথে কৌটো হাতে সাহায্য় চেয়ে ও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অর্থ সাহায্য নিয়ে কমলেশের চিকিৎসার জন্য মোট ৯১,৯৫০ টাকা তুলে দিলেন পরিবারের হাতে ৷ 

মঙ্গলবার রাতে কমলেশের পরিবারের হাতে এই অর্থ তুলে দেওয়া হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি ও সাহায্যকারী ব্যাবসায়ী সংগঠনের পদাধিকারীরা ৷ মেদিনীপুর ছাত্রসমাজের সভাপতি কৃষ্ণগোপাল চক্রবর্তী বলেন,আমাদের মেদিনীপুরবাসী সহৃদয় ব্যক্তিবর্গ ও শুভানুধ্যায়ী মানুষের আশীর্বাদ ও সহযোগিতায় আমরা এই বিপুল পরিমাণ অর্থ কমলেশের পরিবারের হাতে তুলে দিতে পেরেছি।

আমরা ছাত্রসমাজের পরিবার ওনাদের নিকট কৃতজ্ঞ। ছাত্রসমাজের এক সদস্য তথা নলবনা হাইস্কুলের শিক্ষক বাসুদেব মাকড় বলেন,সকলের আশীর্বাদে ভালোবাসায় ও সহযোগিতায় আমাদের ছোট্ট ভাইটি নিশ্চয়ই সুস্থ  হয়ে ফিরে আসবে,এই আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস।