দীপক দাস, শিলিগুড়ি:শরীরের শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত বাংলা মায়ের অঙ্গছেদ কোনও ভাবেই মেনে নেওয়া হবে না। ত্রিপাক্ষিক বৈঠক নিয়ে এমনটাই মন্তব্য করলেন রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব। 

গোর্খ্যাল্যান্ড নিয়ে আগামী ৭ অক্টোবর ত্রিপাক্ষিক বৈঠক ডাকল কেন্দ্রীয় সরকার। সেই বৈঠকে আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে সিংমারিতে বিমল গুরুং-এর বাড়ির ঠিকানায়। চিঠি গিয়েছে রাজ্য সরকার ও জিটিএ’র কাছেও। খবর প্রকাশ্যে আসতেই হইচই শুরু হয়েছে।আগামী ৭ অক্টোবর দিল্লিতে ওই বৈঠক হবে। থাকবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। 

এ নিয়ে এক সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, ভোট এলেও পাহাড় নিয়ে খেলতে শুরু করে বিজেপি। বাংলা ভাগ হবে না। সবই ওদের স্ট্যান্টবাজি। বিমল গুরুং অন্তরালে। অথচ ওর বাড়িতে চিঠি পাঠানো হয়েছে। আমরা পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছি।এই বৈঠক নিয়ে রাজ্যের প্রতিক্রিয়া মেলেনি। বিনয় তামাং পন্থী মোর্চা ও জিটিএ কর্তারা বৈঠকে যাবেন কিনা তা স্পষ্ট নয়। তবে গ্রন্থি মোর্চার নেতৃত্বরা জানান , এটি কেন্দ্রের সদর্থক পদক্ষেপ। আমাদের দুই প্রতিনিধি বৈঠকে যাবেন।

রাজ্য়ের সাম্প্রতিক অতীত বলছে,গোর্খাল্যান্ড নিয়ে উত্তাল হয়েছে রাজ্য়। বিমল গুরুংদের দাবি নিয়ে হইচই কম হয়নি রাজ্য়ে। মাঝে কিছুটা থিতিয়ে এলেও ফের মাথাচাড়া দিয়েছে সেই দাবি। পশ্চিমবঙ্গ থেকে আলাদা হয়ে পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবি। এবার গোর্খাদের সেই দাবি নিয়ে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক শুরু হতে চলেছে। কেন্দ্রের ডাকে সেই বৈঠকে কারা থাকেন তাই এখন দেখার বিষয়।