মহারাষ্ট্রে শিবসেনার সঙ্গে দীর্ঘদিনের জোট ভেঙে গিয়েছে বিজেপির। কংগ্রেস ও এনসিপির সঙ্গে জোট বেঁধে সরকার গড়েছে  শিবসেনা। তবে পুরনো শরিক ফের ফিরে আসবে এমনটাই আসা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের। না, মাহারাষ্ট্র নিয়ে নয়, এমন স্বপ্ন ঝাড়খণ্ডকে নিয়ে দেখছেন অমিত শাহ।

শনিবার থেকে পাঁচ দফায় বিধানসভা নির্বাচনের জন্য ভোট শুরু হচ্ছে ঝাড়খণ্ডে। নির্বাচনের  আগে এনডিএ জোট ছেড়ে বেরিয়ে এসে একাই ভোটে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে  অল ঝাড়খণ্ড স্টুডেন্ট ইউনিয়ন (এজেএসইউ)। কবে নির্বাচনের পর তারা আবার এনডিএ তেই ফিরে আসবে, এমনটাই আশা বিজেপির চাণক্যর। 

" ঝাড়খণ্ডে এবারের নির্বাচেন জিতে ফের ক্ষমতায় ফিরে আসবে বিজেপি, একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েই সরকার গঠন করবে ভারতীয় জন্তাপার্টি, কিন্তু নির্বাচনের পর এজেএসইউ আবার আামদের কাছে ফিরে আসবে বলেই আশাকরি", এমনটাই বলেন অমিত শাহ। 

শাহ মনে করিয়ে দেন অটল বিহারী বাজপেয়ীর আমলেই গঠন হয়েছিল ঝাড়খণ্ডের। আর ২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদী কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পর রাজ্যের বিকাশ গতি পয়েছে, আর সেই ধারাকেই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস। 

ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা আদিবাসী সম্প্রদায়ের জন্য কিছুই করেননি বলে অভিযোগ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। এবারও বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী রঘুবার দাসকেই দলের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে তুলে ধরা হয়েছে। পাঁচ দপার ভোট শেএষ ঝাড়খণ্ডে ফল প্রকাশ আগামী ২৩ ডিসেম্বর।