জ্যোতিষীরা বলেন মানুষের আচার আচরণ এবং চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের ওপরে জন্ম তারিখের এক বিশেষ ধরণের প্রভাব রয়েছে। চরিত্র মানুষের এক অমূল্য সম্পদ। যিনি চরিত্রবান তিনি সমাজে যে কোনও বিরাট সম্পদশালীর চেয়ে বেশি সম্মান পেয়ে থাকেন। চরিত্র মানুষকে দান করে স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য। আর একজন মানুষের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য কেমন হবে সেই সম্বন্ধে প্রাথমিক ধারনা পাওয়া যায় সেই ব্যক্তির রাশি থেকে। 

আরও পড়ুন- অগ্রহায়ণ মাস কেমন প্রভাব ফেলবে মকর রাশির উপর

জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, নামের প্রথম অক্ষর দিয়েই সেই ব্যক্তি সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারবেন অপনি। নামের প্রথম অক্ষর  কিছু না কিছু অর্থ বহন করে। এই একটা অক্ষর দেখে যে কোনও মানুষের সম্পর্কেই অনেক আজানা কথা বুঝে যাওয়া সম্ভব। চরিত্র মানুষের এক অমূল্য সম্পদ। যিনি চরিত্রবান তিনি সমাজে যে কোনও বিরাট সম্পদশালীর চেয়ে বেশি সম্মান পেয়ে থাকেন। চরিত্র মানুষকে দান করে স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য। আজ জানবো, যদি নামের প্রথম অক্ষর 'এম' হয়, তাহলে জেনে সেই ব্যক্তি সম্বন্ধে কিছু তথ্য।

আরও পড়ুন- আর্থিক সমস্যা দূর করতে, বৃহস্পতিবার পালন করুন এই নিয়ম

এদের কূটনৈতিক বুদ্ধি অত্যন্ত প্রখর, এরা রাজনীতি, ব্যবসা ও কর্মক্ষেত্রে খুব দ্রুত সাফল্য অর্জন করেন।
এরা দেখতে অতি সাধারণ। খুব সহজেই সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব করতে পারে।
এই জাতক জাতিকারা যদি গাঢ়, বেগুনি রং ব্যবহার করেন তবে সুনাম, যশ ও খ্যাতি বাড়বে।
ইচ্ছাশক্তি প্রবল হওয়ায় শত সমস্যার মধ্যেও এরা সাফল্যের শিখরে পৌঁছে যান।
যাদের নামের প্রথম অক্ষর 'এম' তাঁদের জীবনে লাল, কালো, নীল রং এর প্রভাব শুভ। 
এই জাতক-জাতিকারা শিল্পকলার সমস্ত বিষয়েই সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়।
এরা যেমন নিজেদের সাজগোজ বা পোশাকের বিষয়ে বিশেষ নজর দেন, সেই রকমভাবে ঘর গোছাতেও সমান দক্ষ হন।
মাঝেমাঝেই অসুস্থতার কারনে এদের সময় ও অর্থ দুটোই ব্যয় হয়।
এরা কাজের বিষয়েও এতটাই দক্ষ, শত বাধার মধ্যেও কাজ শেষ না হওয়া অবধি ছাড়ে না।
এদের প্রতি বিপরীত লিঙ্গের জাতক-জাতিকারা আকৃষ্ট হন, এদের সু-ব্যবহারের জন্য।
পরিবেশ পরিস্থিতির সঙ্গে এরা মানিয়ে নিয় নিজের কাজে সাফল্য লাভ করে থাকে।