আচার্য চাণক্য-এর বিশেষ দলে সদস্যরা সমস্ত শিল্পকলায় দক্ষ ছিল। অত্যন্ত গোপনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য প্রশিক্ষিত মহিলারাও চন্দ্রগুপ্তের সেনাবাহিনীর অংশ ছিল। চাণক্যের মতে, মহিলাদের মধ্যে সাহসের মাত্রা পুরুষের চেয়ে ছয়গুণ বেশি। এই কারণে, সম্ভবত তার নেতৃত্বে প্রথম বিষকন্যা সূচণা হয়েছিল। এই বিষকণ্যারা  সামরিক দলের অংশ ছিল যারা সাহসীকতার সঙ্গে শত্রু বাহিনীর একটি অংশে আক্রমণ করত এবং তাঁদের পরাস্ত করত।

আরও পড়ুন- মকর রাশির কতটা উন্নতি হবে মাঘ মাসে, দেখে নিন ...

আচার্য চাণক্যের রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক কার্যকলাপে গোপনীয় বিভাগগুলিতে  এই মহিলাদের রাখা হত। এখানে তাঁদের আরও ঝুঁকিপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে হত। আমরা সবাই জানি রাজনীতিতে অন্য কিছু হয়। এতে, সাহসী মহিলা যারা দক্ষ ছিলেন তারা বিভিন্ন বিভাগের সাথে যুক্ত ছিলেন। চাণক্য নারীর দুঃসাহসী শোষণের কারণে ছোট সেনাবাহিনী থাকা সত্ত্বেও তৎকালীন সমস্ত বড় সাম্রাজ্য ধ্বংস করতে সফল হয়েছিল।

আরও পড়ুন- মঙ্গলবার ৪ রাশির ব্যবসায় ভাল আয় হতে পারে, জেনে নিন আপনার রাশিফল ...

 আচার্য বলেছেন যে, মহিলাদের মধ্যে ছয় গুণ বেশি সাহস যা তাদের মধ্যে থাকা লজ্জার চেয়েও গুণও চারগুণ বেশি। সাহস এবং লজ্জার মতো গুরুত্বপূর্ণ গুণাবলী মহিলাদের মধ্যে বেশি। লজ্জা মানে সামাজিক এবং পারিবারিক সম্মান। নির্লজ্জ হওয়া পুরুষদের মধ্যে একটি সাধারণ বিষয়ে, এই বিষয়ে গভীরে চিন্তা করা পুরুষদের সংখ্যাও কম। তবে নারীদের মধ্যে পুরুষের চেয়েও নম্রতার পরিমাণ বেশি, তাই তাঁরাই এগিয়ে।