হিন্দু সনাতন ধর্ম মতে, রোজগার করা টাকা যদি সঠিকভাবে খরচ এবং সঞ্চয় করা না যায়, তাহলে জীবনে দেখা যায় বিভিন্ন সমস্যা। শুনতে অবাক লাগলেও জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, বেতন কীভাবে খরচ করছেন তার উপর নির্ভর করে আপনার সৌভাগ্য। রোজগারের পরিমান যাই হোক না কেন, যদি তা সঠিকভাবে খরচ করেন তবে ফিরতে পারবে আপনার সৌভাগ্যও।  তবে কীভাবে আপনি মাইনে সঠিকভাবে খরচ করে সঞ্চয় বাড়াবেন এবং আর্থিক সমস্য়া কাটিয়ে পুণ্য অর্জণ করবেন তা জেনে নেওয়া যাক।

আরও পড়ুন- আগামীতে আর্থিক অবস্থার উন্নতির যোগ রয়েছে এই রাশিগুলির, দেখে নিন কোন রাশি রয়েছে এই তালিকায়

 জ্যোতিষশাস্ত্রে সঞ্চয় ও দানের পাশাপাশি এই কথাও উল্লেখ রয়েছে, সারাজীবন কষ্ট করে আয়ের পাশাপাশি নিজের জন্য খরচও করুন। সারা জীবন আয়ের অর্থের সামান্য পরিমান সঞ্চয় করুন। যেটুকু অর্থ সঞ্চয় করবেন সেইটুকু ভবিষ্যতে বিপদে কাজে দেবে। তবে কৃপণের মত অর্থ সঞ্চয় করলে নিজে কোনওদিনই তা ভোগ করতে পারবেন না। তাই বুঝে খরচ ও সঞ্চয় দুই করুন। তবেই সুরক্ষিত থাকবেন আপনি ও আপনার পরিবারের ভবিষ্যৎ। 

আরও পড়ুন- প্রাচীণ এই নিয়মগুলি আজও পালন করা হয়, এগুলির রয়েছে বিশেষ উপকারীতা ও বৈজ্ঞানিক ব্যাখা

পুরাণে দানের ফলে পুণ্যলাভের কথা উল্লেখ রয়েছে। তাই বেতন হাতে পাওয়ার পরেই সাধ্যমত কিছু দান করুন। তবে দানে যেন কোনও ভাবেই আপনার অহং বোধ না জন্মায়। আপনার মধ্যে দাম্ভিকভাব প্রকাশ পেলেই সেই দানে আর কোনও পুণ্যলাভ হয় না। মাইনের পরিমান যতই কম হোক তার মধ্যেই একটু অংশ দান করুন। দান করার পাশাপাশি যতটুকু সম্ভব সঞ্চয় করুন।