এই শ্রাবণ মাসকে মনে করা হয় শিবের মাস ৷ আজ শ্রাবণ শিবরাত্রি, প্রতি বছর শ্রাবণ মাসে কৃষ্ণপক্ষের চতুর্দশী তিথিতে শ্রাবণ শিবরাত্রি পালিত হয়। ধর্মীয় বিশ্বাস অনুসারে শ্রাবণের শিবরাত্রির তাত্পর্য রয়েছে কারণ এই ব্রত বা উপবাস পালনে সমস্ত দুর্ভোগ দূর হয়। কথিত আছে যে শ্রাবণ শিবরাত্রীর দিন ভগবান শিবের উপাসনা করলে ব্যক্তির পাপ ধুয়ে যায় এবং সুখ লাভ হয়। মনের ইচ্ছা পূরণ করতে এই ব্রত অত্যন্ত পবিত্র। অনেকেই মনে করেন, শ্রাবণ মাসের পর পর সোমবার শিবের পুজো করলে সকল মনের ইচ্ছে পূরণ হয়। তাই বিধি সহকারে প্রতি সোমবার অনেকেই মহাদেবের পুজো করে থাকেন।  শ্রাবণ শিবরাত্রি পুজো করার সঙ্গে সঙ্গে সহজ কিছু নিয়ম পালন করলে জীবনে দারুণ সুফল পাওয়া যায়। জেনে নিন সেই নিয়মগুলি-

শ্রাবণ শিবরাত্রির পুজো করার সময় মহাদেবকে চাল অর্পন করতে ভুলবেন না। এমনটা মনে করা হয়, এই পুজোর সময় চাল অর্পন করলে আর্থিক সমস্যা কমে যায় এবং অর্থ বৃদ্ধি পেতে থাকে। শ্রাবণ মাসের মহাদেবের পুজোয় তিল অর্পন করে মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র উচ্চারণ করলে দ্রুত সুফল পাওয়া যায়। শরীর থেকে সমস্ত রোগ দ্রুত নিরাময় হয়ে যায়।

মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র -

 ওঁ ত্র্যম্বকম যজামহে সুগন্ধিম পুষ্টিবর্ধনম্।
উর্বারুকমিব বন্ধনান্ মৃত্যৌর্মুক্ষীয় মামৃতাত্।।

শ্রাবণ শিবরাত্রিতে যব দিয়ে যদি মহাদেবের আরাধনা করা হয় তবে বাড়ির ভিতরের অশুভ শক্তি দূরে সরে যায় এবং শুভ শক্তি প্রবেশ করে। মহাদেবের পুজোয় আকন্দ ফুলের মালা, ধুতরা ফুল, দুধ দিয়ে স্নান করান। উপোস করে শিবমন্ত্র জপ করলে দ্বন্দ্ব, বিদ্বেষ থেকে মুক্তি পাওয়া যায় ৷  শাস্ত্রমতে, শ্রাবণ মাসের মহাদেবের পুজোয় গম অর্পন করলে দ্রুত সন্তান ধারণের স্বপ্ন পূরণ হয়।