Asianet News BanglaAsianet News Bangla

শনিবার সন্তান সপ্তমী, জেনে নিন শুভ সময়, গুরুত্ব, উপাসনা পদ্ধতি থেকে উপবাসের গল্প

শিশুদের সুখ, সমৃদ্ধি এবং মঙ্গলের জন্য সন্তান সপ্তমী ব্রত পালন করা হয়। এর সাথে সন্তান সুখ লাভের জন্যও এই উপবাস রাখা হয়। এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে এই দিনে গল্প পাঠ করলে বা শ্রবণ করলে ভক্তদের সমস্ত মনোবাঞ্ছা পূরণ হয়।

Santan Saptami 2022 on Saturday, know about auspicious time, importance, worship method to fast story bpsb
Author
First Published Sep 2, 2022, 4:18 PM IST

ভাদ্রপদ মাসের শুক্লপক্ষের সপ্তমী তিথিতে সন্তান সপ্তমী ব্রত পালন করা হয়। সন্তান ও তার মঙ্গলের জন্য সন্তান সপ্তমী ব্রত পালন করা হয়। যারা সন্তান লাভ করতে ইচ্ছুক তাদের জন্যও এই উপবাস উপকারী বলে মনে করা হয়। এই উপবাসে ভগবান শঙ্কর ও মাতা পার্বতীর যথাযথ পূজা করা হয়। মহিলা-পুরুষ উভয়েই এ উপবাস রাখতে পারবে। সন্তান সপ্তমীর তিথি, শুভ সময়, গুরুত্ব ও পূজা পদ্ধতি জেনে নিন-

সন্তান সপ্তমী ২০২২ সালের তারিখ-

হিন্দু ক্যালেন্ডার অনুসারে, ভাদ্রপদ মাসের শুক্লপক্ষের সপ্তমী তিথি শুরু হয়েছে শুক্রবার, দোসরা সেপ্টেম্বর দুপুর ১.৫১ মিনিট থেকে। যা শেষ হবে তেসরা সেপ্টেম্বর দুপুর ১২.২৮ মিনিটে। উদয়তিথির প্রথা অনুযায়ী আগামী ৩রা সেপ্টেম্বর শনিবার সন্তান সপ্তমী ব্রত পালিত হবে।

Santan Saptami 2022 on Saturday, know about auspicious time, importance, worship method to fast story bpsb

সন্তান সপ্তমী ২০২২ শুভ মুহুর্ত-

সন্তান সপ্তমীর দিন সকাল ১১টা ৫৫ মিনিট থেকে দুপুর ১২টা ৪৬ মিনিট পর্যন্ত হবে অভিজিৎ মুহুর্তা। সকালে পূজার সময় হবে সকাল ০৭:৩৫ থেকে সকাল ০৯.১০ পর্যন্ত। এছাড়া দুপুর ১টা ৫৫ মিনিট থেকে সন্ধ্যা ৫টা পর্যন্ত সন্তান সপ্তমীর পূজা করা যাবে।

সন্তান সপ্তমীর তাৎপর্য-

শিশুদের সুখ, সমৃদ্ধি এবং মঙ্গলের জন্য সন্তান সপ্তমী ব্রত পালন করা হয়। এর সাথে সন্তান সুখ লাভের জন্যও এই উপবাস রাখা হয়। এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে এই দিনে গল্প পাঠ করলে বা শ্রবণ করলে ভক্তদের সমস্ত মনোবাঞ্ছা পূরণ হয়।

পূজা পদ্ধতি-

প্রথমে শিব ও মা পার্বতীর মূর্তি রাখুন।
এবার নারকেল পাতা দিয়ে কলসি বসান।
তার পর বাতি জ্বালান।
এবার আরতির থালায় হলুদ, চন্দন, কুমকুম, ফুল, কলব, অক্ষত ও ভোগ ইত্যাদি রাখুন।
সন্তানের সুরক্ষা এবং সমৃদ্ধি কামনা করে ভগবান শিব এবং মা পার্বতীর পূজা করুন।

সন্তান সপ্তমী ব্রতের গল্প-

কিংবদন্তি অনুসারে, প্রাচীনকালে অযোধ্যাপুরীর প্রতাপশালী রাজা ছিলেন নহুশ। তার স্ত্রীর নাম ছিল চন্দ্রমুখী। তাঁর রাজ্যে বিষ্ণুদত্ত নামে এক ব্রাহ্মণ বাস করতেন, তাঁর স্ত্রীর নাম ছিল রূপবতী। রানী চন্দ্রমুখী এবং রুপবতীর মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল, একদিন তারা দুজনেই সর্যুতে স্নান করতে গিয়েছিল। যেখানে অন্যান্য মহিলারাও স্নান করছিলেন।

আরও পড়ুন- বিশ্বকর্মা পুজো থেকে মহালয়া- গোটা সেপ্টেম্বর মাস জুড়ে রয়েছে একাধিক পুজো, রইল তালিকা

ওই নারীরা সেখানে পার্বতী-শিবের মূর্তি বানিয়ে তাদের পূজা করতেন, তারপর রানী চন্দ্রমুখী ও রূপবতী ওই নারীদের নাম ও পূজার পদ্ধতি জানতে চাইলে এক নারী বলেন, সন্তান দান করার উপবাস। এই উপবাসের কথা শুনে রানি চন্দ্রমুখী ও রূপবতীও আজীবন এই উপবাস পালনের সংকল্প করেন এবং শিবের নামে একটি দড়ি বেঁধে দেন। কিন্তু বাড়িতে পৌঁছে সে তার সংকল্প ভুলে যান। যার কারণে মৃত্যুর পর মুরগির যোনিতে রাণী বনারি ও ব্রাহ্মণীর জন্ম হয়।

আরও পড়ুন- বিভিন্ন ধরনের গ্যাজেটের প্রতি থাকে এই চার রাশির আশক্তি, বহু অর্থ ব্যয় করেন এমন জিনিস কিনতে

পরে উভয় প্রাণীই যোনি ত্যাগ করে মানুষের যোনিতে ফিরে আসে। চন্দ্রমুখী মথুরার রাজা পৃথ্বীনাথের রাণী হন এবং রূপবতী আবার ব্রাহ্মণের ঘরে জন্মগ্রহণ করেন। এই জন্মে রাণী ঈশ্বরী নামে এবং ব্রাহ্মণী ভূষণ নামে পরিচিত ছিলেন। ভূষণার বিয়ে হয়েছিল রাজপুরোহিত অগ্নিমুখীর সঙ্গে। এই জীবনেও দুজনেই প্রেমে পড়েছিলেন।

আগের জন্মে উপবাস ভুলে যাওয়ায় এ জন্মেও রাণীর কোনো সন্তান হয়নি। যদিও উপবাসটি ভূষণার স্মরণে ছিল, যার কারণে তিনি আটটি সুন্দর এবং সুস্থ পুত্রের জন্ম দেন। একদিন ভূষণা রাণী ঈশ্বরীর সাথে দেখা করতে গেলেন, সন্তান না হওয়ায় অসন্তুষ্ট। এতে রাণী ভূষণার প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে তার সন্তানদের হত্যার চেষ্টা করেন। কিন্তু বাচ্চাদের ক্ষতি করতে পারেননি।

আরও পড়ুন- ভাদ্র মাসে শুক্ল ষষ্ঠীর তিথিতে পালিত হয় চাপড়া ষষ্ঠী, জেনে নিন পুজোর মাহাত্ম্য

এতে তিনি ভূষণাকে ডেকে পুরো ঘটনা খুলে বলেন এবং তারপর ক্ষমা চাওয়ার পর তাকে জিজ্ঞেস করেন- আপনার সন্তানরা কেন মরেনি? ভূষণা তাকে তার পূর্বজন্মের কথা মনে করিয়ে দিয়ে আরো বলেন, একই উপবাসের প্রভাবে তুমি চাইলেও আমার ছেলেদের হত্যা করতে পারোনি। ভূষণার মুখ থেকে পুরো বিষয়টি জানার পর, রাণী ঈশ্বরীও পদ্ধতিগতভাবে সন্তানের সুখ প্রদানের জন্য এই উপবাসটি পালন করেন, তারপর এই উপবাসের প্রভাবে রাণী গর্ভবতী হন এবং একটি সুন্দর সন্তানের জন্ম দেন। সেই সময় থেকে এই উপবাস পুত্র লাভের পাশাপাশি সন্তানের সুরক্ষার জন্য প্রচলিত।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios