এসে গেল বুদ্ধপূণির্মা। বৌদ্ধদের প্রধান উৎসব বুদ্ধপূর্ণিমা। বৈশাখ মাসের পূর্ণিমায় এই সময়ে বুদ্ধদেবের জীবনের তিনটি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ঘটে। তাই এই সময়কে বুদ্ধপূর্ণিমা বলা হয়। 

এই উৎসবে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মানুষ পুজো করেন বুদ্ধদেবকে। এছাড়া পঞ্চশীল, অষ্টশীল, সূত্রপাঠ, সূত্রশ্রবণ, সমবেত প্রার্থনা এবং নানাবিধ মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। এঁরা বুদ্ধানুস্মৃতি ও সংঘানুস্মৃতি ভাবনায় বিশ্বাসী। 

পূজা ও আচার-অনুষ্ঠানের পাশাপাশি নানা সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয় এই দিনে। বিভিন্ন জায়গায় বৌদ্ধের জীবনবোধ , নীতি সম্পর্কে আলোচনা হয়। বৌদ্ধ সমাজে রীতিমতো ধুম লেগে যায়। তিনদিন ব্যাপী অনুষ্ঠান চলে এই সময়ে। 

দেখে নেওয়া যাক, বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত ও গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা মতে  ১৪২৬ -এর বৈশাখী পূর্ণিমার সময়সূচি ও নির্ঘণ্ট- 

বিশুদ্ধ পঞ্জিকা মতে- 

পূর্ণিমা আরম্ভ:

বাংলা তারিখ: ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, শুক্রবার।
ইং তারিখ: ১৭/০৫/২০১৯।
সময়: শেষরাত্রি ঘ ০৪/১১ মিনিট থেকে।

পূর্ণিমা শেষ:

বাংলা তারিখ: ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, শনিবার।
ইং তারিখ: ১৮/০৫/২০১৯।
সময়: রাত্রি ঘ ০২/৪১ মিনিট পর্যন্ত।

পূর্ণিমা উপবাস:

বাংলা তারিখ: ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, শনিবার।
ইং তারিখ: ১৮/০৫/২০১৯।
সময়: রাত্রি ঘ ০২/৪১ মিনিট পর্যন্ত।


গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা মতে:

পূর্ণিমা আরম্ভ:

বাংলা তারিখ: ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, শুক্রবার।
ইং তারিখ: ১৭/০৫/২০১৯।
সময়: রাত্রি ঘ ০৩/৫৭ মিনিট থেকে।

পূর্ণিমা শেষ:

বাংলা তারিখ: ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, শনিবার।
ইং তারিখ: ১৮/০৫/২০১৯।
সময়: রাত্রি ঘ ০২/৩৮ মিনিট পর্যন্ত।

পূর্ণিমা উপবাস:

বাংলা তারিখ: ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, শনিবার।
ইং তারিখ: ১৮/০৫/২০১৯।
সময়: রাত্রি ঘ ০২/৩৮ মিনিট পর্যন্ত।

প্রসঙ্গত, খ্রিস্টপূর্ব ৬২৩ অব্দে গৌতম বুদ্ধ জন্মগ্রহণ করেন। ৫৮৮ খ্রিস্টপূর্বাব্দের এই দিনে তিনি সিদ্ধিলাভ করেন এবং ৫৪৩ খ্রিস্টপূর্বাব্দের তিনি মহাপরিনির্বাণ লাভ করেন।