সম্পর্কের বিষয়ে ভিন্ন ব্যক্তির ভিন্ন মতামত। তাই একজন ব্যক্তি তাঁর পছন্দ অনুযায়ী তার সঙ্গী বেছে নেন। তাই জ্যোতিষমতে, জাতক বা জাতিকার জন্ম মাস তাঁর ব্যক্তিত্ব বা ভাগ্য় নির্ধারণে সাহায্য করে। একই ভাবে কোনও ব্যক্তির আচরণ এবং তাঁর চরিত্রের বৈশিষ্ট্য নির্ভর করে সেই ব্যক্তির জন্ম সময়, কাল বা জন্ম মাসের উপর। জাতকের ভাগ্য সম্পর্কে অনেক কিছুই বলে দেওয়া সম্ভব। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, ১২টি রাশির মধ্যে এমন ৫টি রাশি রয়েছে যাদের সঙ্গী অল্পতেই রেগে যায়। অর্থাৎ এই রাশির সঙ্গীরা সবথেকে বেশি আগ্রাসী হন। সেই কারণেই সম্পর্ক ভাঙ্গার সম্ভাবনা থাকে এই রাশিগুলির সবথেকে বেশি। জেনে নেওয়া যাক সেই ৫ রাশির নাম।

আরও পড়ুন- মাঘ মাস কেমন প্রভাব ফেলবে মিথুন রাশির উপর, দেখে নিন

বৃষ রাশি- বৃষ রাশির জাতকেরা অত্যন্ত দৃঢ় মানসিকতার তাই এরা কখনোই প্রথম দেখাতেই প্রেমে পড়েন না। যে কোনও বিষয়ে অনেক চিন্তা ভাবনা করেই তবেই কোনও সিদ্ধান্তে আসেন। তবে এরা ব্রেকআপ সহজেই মেনে নিতে পারেন না। কারন এই রাশি দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কে বিশ্বাসী। তাই সম্পর্ক ভাঙ্গনের ক্ষেত্রে এদের সঙ্গীদের প্রভাব থাকে সব থেকে বেশি। 

তুলা রাশি- এই রাশির জাতক-জাতিকারা একা থাকতেই বেশি পছন্দ করেন। এরা নিজের মনের কথা সহজে কাউকে বলে উঠতে পারেন না। তবে এরা খেতে ও খাওয়াতে বেশি ভালোবাসেন। সব দিকে কীভাবে ব্যালেন্স করে চলতে হবে তা এই রাশি খুব ভালো করে জানেন। তবে সম্পর্কে বিষয়ে এদের ব্যলেন্স ঠিক মতো কাজ করতে পারে না। ফলে এদের সঙ্গীদের রাগ বেশি থাকার জন্যই সম্পর্কে ভাঙ্গনের সম্ভাবনা বেশি থাকে।

আরও পড়ুন- মঙ্গলবারের সারাদিন কেমন কাটবে, দেখে নিন এক নজরে

মকর রাশি- এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ শনি। এই রাশির জাতক-জাতিকাদের এদের বন্ধুরা সব সময় এড়িয়ে যায়। এরাই একা থাকতেই বেশি পছন্দ করে। এদের সন্দেহপ্রবণতার জন্য বিবাহিত জীবনে অনেক সমস্যা দেখা দেয়। এদের অবসাদ এবং বিষাদ এদের মধ্যে অতি মাত্রায় দেখা যায়। এরা সব কিছু যুক্তি দিয়ে ভাবতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। সম্পর্ক ভাঙ্গনের ক্ষেত্রেও এরা প্রচুর চিন্তা ভাবনা করেন কেন ব্রেকআপ হল। এদেরও সঙ্গীর মাথা গরম হওয়ার কারণে প্রণয়ের সম্পর্ক বেশিদিন দীর্ঘস্থায়ী হয় না।

আরও পড়ুন- মাঘ মাসে কখনই অপরের এই জিনিসগুলি ব্যবহার করবেন না, হতে পারে মহাবিপদ

কন্যা রাশি- এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ বুধ। এই রাশির জাতক-জাতিকারা খুব কর্তব্যপরায়ণ হয়ে থাকে। এরা একা থাকতে পছন্দ করেন না। এদের প্রচুর বন্ধু হয়ে থাকে। নিজের প্রিয় মানুষটিকে কাছে রাখতে এরা যে কোনও পথ অবধি যেতে পারে। প্রেমের বিষয়ে এরা অত্যন্ত স্পর্শকাতর। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, সুখি সম্পর্ক গড়ে তোলার জন্য কন্যা রাশির মত অন্য কোনও রাশি হয় না। এরা মানসিকভাবে প্রেমের সম্পর্কে এমন ভাবে জড়িয়ে পরেন সেখান থেকে বেড়িয়ে আসতে এদের অনেক সময় লাগে। তবে এই রাশিরও রাগী সঙ্গী হওয়ার কারণে সম্পর্কে ভাঙ্গন দেখা যায়।

বৃশ্চিক রাশি- রাশিচক্রের অষ্টম রাশি বৃশ্চিক। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ হল মঙ্গল। এই রাশির জাতক-জাতিকারা কঠোর পরিশ্রমী। তাই জীবনের দেরিতে হলেও এরা উন্নতি লাভ করে। তবে এই রাশির স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো থাকে না। এদের বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রচুর সম্পত্তির মালিক হয়ে থাকেন। এরা নিজের মনের চলতে বেশি পছন্দ করেন। কারও অধীনে থাকা এরা একেবারেই পছন্দ করেন না। তবে পছন্দের মানুষ সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে যেতে চাইলে এরা তা মেনে নিতে পারেন না। এদের সঙ্গীর রাগের কারনে সম্পর্কে ভাঙ্গন দেখা যায়।