মনে করা হয় পৃথিবীতে প্রতিটি মানুষকে অন্য ব্যক্তির থেকে আলাদা। উচ্চতা, চেহারার পাশাপাশি স্বভাবেরর দিক থেকে একজন ব্যক্তি অপরের থেকে পৃথক। কখনও কখনও ব্যক্তির মধ্যে থাকা কিছু গুণ বা চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য তাকে অন্যের থেকে আলাদা করে তোলে। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, একই ভাবে প্রতিটি ব্যক্তির কপালের রেখাও হাতের রেখার মত ভিন্ন হয়। প্রতিটি ব্যক্তির কপালে থাকা রেখাগুলি এক নয়। কিছু রেখা গভীর, কিছু সোজা এবং কিছু হালকা। তবে সাতটি প্রধান রেখা থাকে। এগুলি হল - বুধ, শুক্র, মঙ্গল, শনি, গুরু, চাঁদ এবং সূর্য রেখা। এই রেখাগুলিই বলে দেয় কেমন কাটবে আপনার ভবিষ্যৎ।
 
বুধ রেখা - এই রেখাটি ভ্রুগুলির মাঝখানে গঠিত হয়। এই রেখা মধ্য থেকে উঠে দুই কানের দিয়ে যায়। যার বুধের রেখাটি স্পষ্টভাবে উপস্থিত হয় তিনি তীক্ষ্ণ বুদ্ধি সম্পন্ন বলে মনে করা হয়। তার ভাগ্যে অনেক টাকা থাকে। তারা কখনও কোনও অর্থনৈতিক ক্ষতি সহজে হতে দেয় না।
 
শুক্র রেখা - যাদের শুক্র রেখা স্পষ্টভাবে দেখা যায় তারা খুব ভাগ্যবান। এদের হাতে হঠাৎ করেই প্রচুর অর্থপ্রাপ্তির যোগ থাকে। তারা ভ্রমণ খুব পছন্দ করে। এই রেখাটি কপালের ঠিক মাঝখানে থাকে। রেখাটি যত গভীর হয়, ব্যক্তি তত বেশি ভাগ্যবান। যদি এই রেখাটি যদি স্পষ্টভাবে দেখা না যায় তবে সেই ব্যক্তির ভাগ্য তাদের সমর্থন করে না। 
 
মঙ্গল রেখা - এই রেখাটি প্রায় কপালের মাঝখানেও তবে এর অবস্থানটি শুক্র রেখার কিছুটা উপরে থাকে। এই ধরনের ব্যক্তি খুব আবেগপ্রবণ হয়। মঙ্গল গ্রহের রেখা গভীর হলে তার রাগ প্রায়শই সপ্তমে থাকে। যদিও তারা হৃদয় থেকে খুব পরিষ্কার, তবে তারা যদি রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন তবে তা অত্যন্ত লাভজনক হয়।
 
গুরু রেখা - গুরু রেখা শুক্র এবং মঙ্গল রেখার উপরে থাকে। এ জাতীয় লোকেরা আধ্যাত্মিক প্রকৃতির বলে মনে করা হয়। তারা সামাজিকভাবে মেলামেশা করতে পারে সহজেই। যে জাতগুলি গুরু রেখা হালকা বা তুচ্ছ তারা পাপকর্মে  লিপ্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। আর যাগের এই রেখা গভীর তাদের ব্যবসা, পরিবার এবং সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন করে তোলে, যার কারণে হতাশাগ্রস্থ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 
 
শনি রেখা- এটি কপালের উপরের অংশে গুরুর উপরে উপস্থিত হয়। যদি শনি রেখাটি গভীর হয় তবে জীবনে অর্থের অভাব থাকে না। এরা একবার যা সিদ্ধান্ত নেন তা মনে মনে রাখে এবং সেই মতই কাজ করেন।  তবে শনি রেখাটি খুব কম লোকের কপালে উপস্থিত হয়।
 
চন্দ্র রেখা - এই রেখাটি আপনার অর্থনৈতিক জীবনের উত্থান-পতনগুলি দেখায় । যদি আপনার এই রেখাটি পরিষ্কার থাকে, তবে আপনার কোনও অর্থের অভাব হবে না। তবে এটি স্পষ্টভাবে না থাকলে বা খণ্ডিত থাকসে, আর্থিক ক্ষতির সম্ভাবনা প্রবল থাকে। এই রেখাটি বাম ভ্রুর ঠিক উপরে থাকে। যাদের চন্দ্র রেখা গভীর,তারা বেশিরভাগই শিল্প ক্ষেত্রে তাদের নাম অর্জন করে।
 
সূর্য রেখা - এটি সরাসরি চন্দ্র রেখার বিপরীতে অর্থাৎ ডান ভ্রুয়ের উপরে থাকে। এই রেখা দেখে একজন ব্যক্তির ভাগ্য খুব উন্নত বলে বিবেচিত হয়। যে সমস্ত লোকের এই রেখাটি নেই বা এটি ঝাপসা তাদের জীবনে নানান সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়।