জ্যোতিষশাস্ত্রের মতে, জাতক বা জাতিকার রাশি তাঁর ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে জানতে সাহায্য করে। একইভাবে কোনও ব্যক্তির আচরণ এবং তাঁর চরিত্রের বৈশিষ্ট্য নির্ভর করে সেই ব্যক্তির জন্ম সময়, কাল বা জন্ম মাসের উপর। একজন মানুষ সম্পর্কে অনেক কিছুই বলে দেওয়া সম্ভব তার রাশির বিষয়ে জ্ঞান থাকলে। মানুষের পরিচয় প্রকাশ পায় তার স্বভাবেই। তাই জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, কোন রাশির স্বভাব কেমন তাও যেমন অনুমান করা সম্ভব। পাশাপাশি কোন রাশির কোন স্বভাবের ফলে আপনি বিপদে পড়তে পারেন জেনে নিয়ে সতর্ক হোন।

আরও পড়ুন- বাড়িতে এই সমস্যাগুলো থাকলেই দেখা দেয় অর্থের অভাব, লেগেই থাকে সঙ্কট 

মেষ ও বৃষ রাশি- এই দুই রাশি খুব স্বাধীনচেতা। এদের এই স্বভাব মাঝে মাঝেই এদের কাজের উপর প্রভাব ফেলে। সমস্যা থেকে গা বাঁচিয়ে চলতে এরা খুব পছন্দ করে। তবে সম্পর্কের বিষয়ে এরা নিজেদের জোড় খাটাতেই বেশি পছন্দ করে। মাঝে মাঝে আবার অবসাদেও ভোগেন। 

মিথুন কর্কট রাশি- কর্কট রাশি অপরের কাজের উপর ভীষণ ভাবে নির্ভরশীল। পাশাপাশি মিথুন রাশি কখন কি করবেন আর কখন কি করবেন না, তা তারা নিজেরাও ঠিক বলতে পারবেন না। অপরের দ্বারা উদ্ভুদ্ধ হয়ে এরা সিদ্ধান্ত নেন যা সমস্যা সৃষ্টি করতে পার। এদের মত প্রতি সময়ে বদলে যায়। 

সিংহ ও কন্যা রাশি- এই দুই রাশি কঠোর পরিশ্রম করতে ভালোবাসে না। এই দুই রাশি খুব অলস প্রকৃতির। এই দুই স্বভাবের ফলেই এদের কর্মজীবনে প্রবল সমস্যার সম্মুখীণ হতে হয়। এর পাশাপাশি কন্যা রাশি সমালোচনা করতে খুব ভালোবাসেন। যার ফলে এদের মাঝে মধ্যেই সমস্যায় পড়তে হয়।

আরও পড়ুন- এই রাশিগুলিকে কেউ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না, এরা নিজের মনের মত চলে 

তুলা ও বৃশ্চিক রাশি- বৃশ্চিক রাশির জাতক জাতিকারা অত্যন্ত আগ্রাসী। এবং এই দুই রাশি যে কোনও সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন সহজেই কিন্তু কোন সময়ে তা কাজে লাগাবেন এই বিষয় স্থির করে উঠতে পারেন না। অনেক সময়ে সঠিক সময়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেও সময় মত তা কাজে না লাগানোর ফলে সমস্যার সৃষ্টি হয়। এর ফলে এদের সঙ্গে থাকা মানুষগুলোকে প্রায়ই সমস্যায় পড়তে হয়।

ধনু ও মকর রাশি- মকর রাশির সব বিষয়ে খুব বিরক্তি, আর এদের বিরক্তির জেরে জন্মায় নানান সমস্যা।  এরা নিজেদের ক্ষতি হবে জেনেও জেদ বশত সেই কাজ করেন। এই স্বভাব প্রায়ই কাছে থাকা মানুষগুলোকে বিপদের মুখে ঠেলে দেয়। এদের জেদ এতটাই বেশি যে তার পরে মাথা ঠান্ডা হয়ে গেলেই অনুশোচনা করতে থাকেন। পাশাপাশি মকর রাশির বিরক্তির জেরে জন্মায় নানান সমস্যা।

কুম্ভ ও মীন রাশি- এই দুই রাশি কিছুতেই নিজেদের সমস্যার কথা মুখ ফুটে বলতে পারে না। এর ফলে এদের সঙ্গে থাকা মানুষগুলোকে বিপদে পড়তে হয়। এদের বহিঃপ্রকাশ এতটাই কম যে, সেটা অপরের কাছে বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এই দুই রাশির জাতক জাতিকারা কারণে অকারণে রেগে যান। নিজেরাও মাঝে মাঝে ভুলে যান ঠিক কোন কারণে এই রাগ করা।