ব্যোমকেশ থেকে ফেলুদা, এই দুই জনপ্রিয় চরিত্রতেই দেখা গিয়েছে একাধিক তারকাকে। যদিও দর্শকের চোখে এখন ব্যাোমকেশ মানেই আবির চট্টোপাধ্যায়। তবে কেন আবার ব্যোমকেশ করবেন আবির এই প্রসঙ্গ উঠতে। কারণ একটাই এর আগে ভেঙ্কটেশ ফিল্মের পক্ষ থেকে ব্যোমকেশ হিসেবে নাকি নির্বাচন করা হয়েছিল অনির্বাণকে। এমনটাই জল্পনা ছিল তুঙ্গে। সেই ছবির পরিচালক হিসেবে জুটি বাঁধার কথা ছিল বিরসা দাশগুপ্তকে। 

আরও পড়ুনঃ খুনের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিলে হবে না, সুশান্ত কেসে মুখ খুললেন ফরেন্সিক টিমের হেড

তবে লকডাউনে সেই সমীকরণ গেল বদলে। লকডাউন না থাকলে হয়তো এতো দিনে শ্যুটিংও হত শেষ। কিন্তু তা আর হয়ে না ওঠায় এবার কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে অনির্বাণ নয়, ব্যোমকেশেরে চরিত্রে থাকছেন আবির চট্টোপাধ্যায়। অনির্বাণ যেমন ছিলেন ওয়েবে তেমনটাই থাকছেন। নতুন ব্যোমকেশের পরিচালনাতে থাকছেন ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও এই নিয়ে কোনও মন্তব্যই সংস্থা। 

 

আবির চট্টোপাধ্যায় ও ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমীকরণ কতটা মজবুত তা চাক্ষুস করেছে দর্শকেরা। গুপ্তধন ছবি সুপার হিট হওয়ার পর থেকেই এই জুটিকে নিয়ে ভাবনা শুরু করেছে সংস্থা। পর পর দুটি ছবি ভালো আয় করে, জনপ্রিয়তার তুঙ্গেও ওঠে মুহূর্তে। সেই দিকে নজর দিয়েই আবারও ব্যোমকেশ হিসেবে আবিরকেই বেছে নেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। এরআগে ব্যোমকেশ হিসেবে যীশু সেন্গুপ্তকেও পেয়েছে দর্শকেরা।