করোনা আতঙ্ক এখন ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। মুহূর্তের মধ্যে একজনের থেকে আরেকজনের শরীরে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। ইতিমধ্যেই করোনা আতঙ্কে জেরবার বিশ্ববাসী । মানুষের সংস্পর্শেই সংক্রমিত হচ্ছে এই করোনা ভাইরাস । মানুষের নিঃশ্বাস প্রশ্বাসের সঙ্গেই ছড়িয়ে যাচ্ছে এই রোগের জীবানু। যত দিন যাচ্ছে ততই যেন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা। সারা দেশে  মহামারির আকার ধারণ করেছে এই করোনা ভাইরাস। ইতিমধ্যেই করোনা রুখতে দেশে  লকডাউন শুরু হয়েছে। তাতেও ঠেকানো যাচ্ছে না মহামারীকে। এই সঙ্কটের মধ্যেও আশার আলো দেখাচ্ছে দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স অর্থাৎ এইমস।

আরও পড়ুন-পুলিশি জেরার মুখে কঙ্গনা, সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে বেরিয়ে আসবে কি নয়া মোড়...

ইতিমধ্যেই করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালের প্রথম ও দ্বিতীয় পর্ব শুরু হতে চলেছে। সেই খবর পাওয়া মাত্রই সেই ট্রায়ালে অংশ নেওয়ার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছেন চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়। গত সোমবারই ই-মেল মারফত সেই আবেদন তিনি সেড়ে ফেলেছেন। করোনা ভ্যাকসিন হিউম্যান ট্রায়ালে স্বেচ্ছাসেবী হয়ে সেখানে অংশ নিতে চান চূর্ণী। এবং করোনা ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলকভাবে তার শরীরে প্রয়োগ করা হোক, এমনটাই ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন অভিনেত্রী।

আরও পড়ুন-ফের অশ্লীল ভাষায় কটাক্ষ স্বস্তিকাকে, ফেসবুককে হাতিয়ার করেই চলছে আক্রমণ...

চলতি বছরের মাদার্স ডে-র দিনই নিজের ফেসবকে করোনা ভ্যাকসিন হিউম্যান ট্রায়ালের কথা তিনি জানিয়েছিলেন। যদিও করোনা ভ্যাকসিন হিউম্যান ট্রায়ালে বেশ কিছু নিয়মবিধি রয়েছে। যেমন স্বেচ্ছাসেবকের কোনও কঠিন অসুখ থাকলে চলবে না। তার বয়স ১৮-৫৫ বছরের মধ্যে হতে হবে। আর সেই সবকিছু মিলে যাওয়াতেই তিনি এই ট্রায়ালে অংশ নিতে চেয়েছেন। মা চূর্ণীর এই মহৎ কাজকে কুর্নিশ জানিয়েছে ছেলে উজান। মায়ের এই খবর শেয়ার করে মায়ের প্রতি কতটা গর্ব তার, সে কথাই ব্যক্ত করেছেন উজান।