বাংলা বিনোদন জগত থেকে একঝাঁক তারকা সম্প্রতি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। টলিউড ও টেলিউডের এই তারকারা দিল্লি গিয়ে গেরুয়া বাহিনীতে যোগ দিয়েছেন। এবার এই প্রসঙ্গে মুখ খুললেন চিত্র পরিচালক তথা অভিনেত্রী অপর্ণা সেন। তিনি বলেন, তৃণমূলের জাহাজ এখন ডুবন্ত। তাই একে একে সবাই ক্ষমতার দিকে ঝুঁকছেন। 

আরও পড়ুনঃ মমতা নিজেই নিজের কবর খুঁড়ছেন! অপর্ণা সেন মুখ্যমন্ত্রীকে কী পরামর্শ দিলেন

বৃহস্পতিবার দিল্লিতে বিজেপি শিবিরে যোগ দেন পার্ণো মিত্র, রূপাঞ্জনা মিত্র, ঋষি কৌশিক, কাঞ্চনা মৈত্র, অঞ্জনা বসু, মৌমিতা গুপ্ত, লামা হালদার-সহ আরও বেশ কয়েকজন। মুকুল রায় ও বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের উপস্থিতিতে এই এদিন বিজেপিকে যোগ দেন তারকারা। 

এই বিষেয় অপর্ণা সেন সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে বলেন, সিপিএম যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন এই অভিনেতারা সিপিএম-এর সঙ্গে ছিল। তার পরে তৃণমূল ক্ষমতায় এলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ছিলেন এঁরা। এবার বিজেপি ক্ষমতা বিস্তার করছে বলে সেই দলে যোগ দিচ্ছেন এই অভিনেতারা। 

অপর্ণার কথায়, যেখানেই ক্ষমতা দেখবেন, সেখানেই এঁরা যাবেন। এরকম মানুষ অনেকই রয়েছেন। কিন্তু এদের নিয়ে আমি ভাবি না। ডুবন্ত জাহাজ ছেড়ে মানুষ ক্ষমতার দিকেই যায়। এটা মানুষের সহজাত বৈশিষ্ট্য। 

হিন্দি ছবির অভিনেতাদের ব্যপারে কথা বলতে গিয়ে অপর্ণা সেন বলেন, অনেক বেশি সংখ্যক  মানুষের কাছে পৌঁছতে হয় হিন্দি ছবির তারকাদের। তাই নিজের রাজনৈতিক মতামত তাঁরা সেভাবে প্রকাশ করেন না। ওঁদের গায়ে রাজনৈতিক রং লাগলে সমস্যা হবে। 

কিন্তু বাংলায় কীভাবে এতটা প্রভাব বিস্তার করে ফেলল বিজেপি। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তৃণমূলের ভরাডুবি অবস্থার জন্যই বাংলায় ভিত শক্ত হচ্ছে বিজেপির। আর কোনও বিকল্পও নেই। কংগ্রেসও সেভাবে নেই বললেই  চলে। কিন্তু আমার মনে হয় বামফ্রন্ট ও কংগ্রেসের আবার শক্ত হাতে হাল ধরা উচিত। কারণ আমাদের এই মুহূর্তে একটি শক্তিশালী বিরোধী দল দরকার।