বাথরুম স্ক্রাবার দিয়ে রোগীকে ইলেকট্রিক শক। 'কৃষ্ণকলি' ধারাবাহিকের এই দৃশ্য ভাইরাল হতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ধারাবাহিকটি নিয়ে ছি-ছিক্কার পড়ে যায়। এমন ভুল ইচ্ছাকৃত নাকি অনিচ্ছাকৃত তা নিয়ে উঠেছিল প্রশ্ন। চলেছিল সমালোচনা। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই ফের চিত্রনাট্যের জেরে ট্রোল হতে হল ধারাবাহিকটিকে। একের পর এক মিমে ভরতে থাকে নেটদুনিয়া। এই ভুল সকলেরই চোখে পড়তেই স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পড়ে চারিদিকে। নতুন যে বিষয়টি নিয়ে ট্রোল শুরু হয়েছে তা জড়িত প্লাস্টিক সার্জারি ধরণের জিনিসের সঙ্গে। 

আরও পড়ুনঃসানি লিওনি ক্লাসে থাকলে কলেজের ফর্ম তুলতে রাজি এই টলি অভিনেতা, দেখে নিন তাঁর টুইট

অশোক এক মেকআপ আর্টিস্টের কাছে গিয়ে মুখে এক অদ্ভুত মাস্ক শিট লাগিয়ে হয়ে উঠল নিখিল। যা দেখে সরাসরি এক নেটিজেন লিখে বসে, "অতিরিক্ত নেশা করে চিত্রনাট্য লেখার ফল।" ভিডিওটি শেয়ার করতেই একের পর এক ট্রোলাররা ছুঁটে আসে কমেন্ট সেকশনে। তবে ক্ষিপ্ত হয়েছে একাধিক বাঙালি দর্শক। তাদের কথায়, দিন দিন কোথায় নামছে ধারাবাহিকগুলির গল্প। এমন চিত্রনাট্য, এমন পরিচালনা হয় কীকরে। 

আরও পড়ুনঃএক সুতোয় বাঁধা দুই ঘরানার তামান্না-রাধে, এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে ঋত্বিক ও শ্রেয়া

আরও পড়ুনঃসুশান্তের ক্লস্ট্রোফোবিয়া ছিল, দাবি রিয়ার, ভিডিও পোস্টে পাল্টা আক্রমণ অঙ্কিতার

এই ধারাবাহিকগুলিই নাকি টিআরপি-র দৌঁড়ে শীর্ষে থাকে। সমালোচনা তুঙ্গে উঠছে ক্রমশ। এমনকি ধারাবাহিকটির সেই দৃশ্য ছড়িয়ে পড়ে চারিদিকে। অশোক অর্থাৎ অভিনেতা ভিভান ঘোষ এবং নিখিল অর্থাৎ নীল ভট্টাচার্যকে নিয়ে ট্রোলের অন্ত নেই। জেন ওয়াইয়ের মধ্যে নীলের ফ্যান ফলোয়িং নেহাতই কম নয়। এই ভাইরাল হওয়া ভিডিওর জেরে হতাশ হয়েছে সেই ভক্তরাও। তাদের প্রশ্ন, এখনকার যুগের ছেলে হয়ে  এমন চিত্রনাট্যে কাজ করতে রাজি হন এনারা।     

আরও পড়ুনঃসিবিআইয়ের সঙ্গে অসহযোগিতা, সিবিআই-এর চড় রিয়াকে, টুইটে জল্পনা তুঙ্গে